Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার , ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ০৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

অবশেষে এক টেবিলে ক্রিকেটার-বিসিবি

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:৫৬ এএম

ঘরোয়া ক্রিকেটে পারিশ্রমিক বাড়ানোসহ ১১ দফা দাবিতে ধর্মঘটের ঘোষণা দেন সাকিব আল হাসান। সোমবার মিরপুর বিসিবি একাডেমি মাঠে এসময় তার সঙ্গে ছিলেন অন্য ক্রিকেটাররা। এগারো দফা দাবির সঙ্গে যোগ হলো আরও দুটি-মোট ১৩ দফা দাবি জানিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে চিঠি দিয়েছে আন্দোলনরত দেশের শীর্ষ ক্রিকেটাররা।

মিরপুরে জাতীয় ক্রিকেট একাডেমি মাঠে গত সোমবার প্রায় ৬০ জন ক্রিকেটারকে সঙ্গে নিয়ে ধর্মঘটের ঘোষণা দেন সাকিব আল হাসান। এর প্রেক্ষিতে গতপরশু প্রায় ১ ঘন্টা ১০ মিনিটের সুদীর্ঘ এক সংবাদ সম্মেলনে ক্রিকেটারদের এই আন্দোলকে বিশেষ মহলের ষড়যন্ত্র, দেশের ক্রিকেটকে অস্থিতিশীল করার চক্রান্ত বলে মন্তব্য করেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। তারই জবাবে গতকাল গুলশানের একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনে ক্রিকেটারদের মুখপাত্র হিসেবে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মুস্তাফিজ রহমান খান দাবিগুলো তুলে ধরেন।

ঘরোয়া ক্রিকেটে পারিশ্রমিক বাড়ানো, ক্রিকেটারদের প্রতি বোর্ডের দৃষ্টিভঙ্গি বদলানো সহ মোট ১১টি দাবি জানিয়েছিল তারা। যোগ হওয়া দুটি দাবির একটি হলো বোর্ডের রাজস্বের ভাগ দিতে হবে ক্রিকেটারদের এবং নারী ক্রিকেট দলকেও দিতে হবে ন্যায্য ভাগ। তবে এখনই কোনো আইনী পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না জানিয়ে মুস্তাফিজ জানান, বোর্ডের সঙ্গে বসতে প্রস্তুত ক্রিকেটাররা। এমন কি, নিজেদের স্বাভাবিক কার্যক্রমে যেতেও প্রস্তুত, তবে দাবিগুলোর প্রাতিষ্ঠানিক মেনে নেয়ার পরও।

গুলশানের একটি হোটেলে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে শুরু হয় সংবাদ সম্মেলন। ক্রিকেটারদের আইনজীবী জানিয়েছেন, তারা ১৩ দফা সম্বলিত চিঠি পাঠিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছে। যোগ হওয়া দুটি দাবির একটি হলো বোর্ডের রাজস্বের ভাগ দিতে হবে ক্রিকেটারদের এবং নারী ক্রিকেট দলকেও দিতে হবে ন্যায্য ভাগ। চক্রান্ত, ষড়যন্ত্রের অভিযোগ উঠছে। সেখানে দুই-একজন ক্রিকেটার জড়িত বলেও ধারণা করছে ক্রিকেট বোর্ড। ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে ‘ডাহা মিথ্যা’ বলার অভিযোগও করছেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান। ক্রিকেটারদের পক্ষ থেকে সেসবের কোনো আনুষ্ঠানিক জবাব এখনও দেওয়া হয়নি।

এর মাঝে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন ওয়ানডে অধিনায়ক এবং জাতীয় সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা। তাকে প্রধানমন্ত্রী দায়িত্ব দিয়েছেন মধ্যস্থতা করার। তবে গতকালই দুপুরের পর প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে গণভবনে যান বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বিসিবি সভাপতি পুরো পরিস্থিতি বর্ণনা করেন। এ সময় বিসিবি সভাপতির সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সাবেক অধিনায়ক, বর্তমানে বিসিবি পরিচালক এবং ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (কোয়াব) সভাপতি নাঈমুর রহমান দুর্জন। বিকেল ৩টার পর গণভবন থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা খেলোয়াড়দের সব দাবি-দাওয়া মেনে নেওয়ার জন্য প্রস্তুত আছি। আমরা বলছি, সবগুলো দাবি মানার মতো, এটা কোনো সমস্যাই না। আসলেই শেষ। তারপরও আমরা যোগাযোগ করছি, তারা ফোন ধরছে না। ওরা কোনো যোগাযোগ করছে না। তাহলে করবটা কী বলেন?’

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়ে জানতে চাইলে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘উনি তো সবই জানেন। গত পরশুদিনও উনার সাথে ছিলাম। কাল সকালে মাশরাফি এসেছিল। এখন আমি উনাকে জাস্ট জানাতে আসলাম আপডেট।’

তার পর থেকেই অপেক্ষায় ছিলেন বোর্ড প্রধান। তার সঙ্গে অপেক্ষায় বিসিবি পরিচালকরাও। দ্রুত সংকট সমাধানে তারা কথা বলতে চান সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহদের সঙ্গে। তবে ক্রিকেটাররা বিসিবি কার্যালয়ে না গিয়ে জমায়েত হন গুলশানে। সন্ধ্যায় সেখানকার একটি হোটেলে তারা সংবাদ সম্মেলনে করেন। যেখানে ক্রিকেটারদের মুখপাত্র হিসেবে ব্যারিস্টার মুস্তাফিজ রহমান দাবিগুলো তুলে ধরেন। ঘরোয়া ক্রিকেটে পারিশ্রমিক বাড়ানো, ক্রিকেটারদের প্রতি বোর্ডের দৃষ্টিভঙ্গি বদলানো সহ মোট ১১টি দাবি জানিয়েছিল তারা। যোগ হওয়া দুটি দাবির একটি হলো বোর্ডের রাজস্বের ভাগ দিতে হবে ক্রিকেটারদের এবং নারী ক্রিকেট দলকেও দিতে হবে ন্যায্য ভাগ। তবে এখনই কোনো আইনী পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না জানিয়ে মুস্তাফিজ জানান, বোর্ডের সঙ্গে বসতে প্রস্তুত ক্রিকেটাররা।

পরে তার কণ্ঠে কণ্ঠ মিলিয়ে সাকিব আল হাসানও চাইলেন সমস্যার দ্রুত সমাধান। তিনি তাঁর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘বোর্ডের কারও সঙ্গে আমাদের ব্যক্তিগত ক্ষোভ, দুঃখ কিংবা বিরাগ নেই। আমরা সবাই মিলেই ক্রিকেট বোর্ড। দ্রুত সমস্যার সমাধান চাই। বোর্ডের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চাই।’ সাকিব যোগ করেন, ‘আমরা কিছু দাবি তুলে ধরেছি। যেগুলা যৌক্তিক। এ জন্য সময় নিয়েছি।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ