Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

বঙ্গবন্ধুর নামে সড়কের নামকরণ করছে ফিলিস্তিন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

ফিলিস্তিনের প্রাচীন ঐতিহ্যের শহর হেবরনের একটি সড়কের নাম বাংলাদেশের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফিলিস্তিন সরকার।

গতকাল শনিবার আজারবাইজানের বাকু কংগ্রেস সেন্টারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎকালে ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ আল-মালিকি একথা জানান। ওই সড়কের নামফলক উন্মোচন করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফিলিস্তিন সফরেরও আমন্ত্রণ জানান রিয়াদ মালিকি। ১৮তম জোট নিরপেক্ষ আন্দোলন-ন্যামের শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে বাকু সফরে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সম্মেলনে যোগদানের ফাঁকে এই সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পরে পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম উপস্থিত ছিলেন। পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক বলেন, সাক্ষাৎকালে ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, তারা হেবরনের একটি সড়কের নাম বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামের ওপর রাখবেন। এ ব্যাপারে তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সেজন্য প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণও জানানো হয়েছে। পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ফিলিস্তিন ইস্যুটা বিশ্ব পরিসরে সবসময় তুলে ধরার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন রিয়াদ মালিকি। শহীদুল হক বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্যিক ও কূটনৈতিক সম্পর্কোন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অনুরোধ করেছেন ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

ন্যাম সম্মেলনের সাধারণ বিতর্ক অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৮তম ন্যাম সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিয়েছেন। গতকাল সকালে আজারবাইজানের বাকু কংগ্রেস সেন্টারের প্ল্যানারী হলে এ অধিবেশনে যোগ দেন।
শেখ হাসিনা এবং সম্মেলনে যোগদানকারী অন্যান্য দেশের নেতৃবৃন্দ গতকাল বিকালে অনুষ্ঠেয় দু’দিনব্যাপী সম্মেলনের সমাপনী অধিবেশনেও যোগ দেন।

বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধান এবং অংশগ্রহণকারী দেশের প্রতিনিধিবৃন্দ বাকু কংগ্রেস সেন্টারে অনুষ্ঠেয় এই অনুষ্ঠানে বাকু ঘোষণা গ্রহণ করেন। এদিকে প্রধানমন্ত্রী সম্মেলনের সাইড লাইনে বাকু কংগ্রেস সেন্টারের দ্বিপাক্ষিক বুথে আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম এলিয়েভ এবং নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শার্মা ওলী’র সঙ্গেও বৈঠকে মিলিত হয়েছেন।

এছাড়া বিকালে আজারবাইজানের শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন প্রধানমন্ত্রী। শহীদদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে নির্মিত স্তুম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন এবং কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ ও পররাষ্ট্র সচিব মো. শহিদুল হকসহ প্রধানমন্ত্রীর অন্যান্য সফর সঙ্গীরা এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন।
পাশাপাশি, সন্ধ্যায় হোটেল হিলটনে তার সম্মানে আজারবাইজানের দায়িত্বপ্রাপ্ত তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মো. আল্লামা সিদ্দিকি আয়েজিত নৈশ ভোজেও যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। আজারবাইজানে চারদিনের সফর শেষে প্রধানমন্ত্রী আজ স্থানীয় সময় বেলা ১১টায় বাকু হেইদার আলিয়েব আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইটে দেশের উদ্দেশ্যে রওনা হবেন। বিমানটি আজ সন্ধ্যা ৭টা ৪৫মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করার কথা রয়েছে।

ঢাকায় ফের মিশন খুলবে আলজেরিয়া
বাংলাদেশের সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য স¤প্রসারণে ঢাকায় ফের কূটনৈতিক মিশন চালু করবে আলজেরিয়া। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতে এ কথা জানিয়েছেন দেশটির ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট আবদেলকাদের বেনসালাহ।
গত শুক্রবার বিকেলে আজারবাইজানের রাজধানী বাকুতে শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন বেনসালাহ। বাকু কংগ্রেস সেন্টারে ১৮তম ন্যাম সম্মেলনের সাইড লাইনে দু’জনের মধ্যে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকের পর পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। তিনি বলেন, একসময় বাংলাদেশে আলজেরিয়ার কূটনৈতিক মিশন ছিল। কিন্তু তা বন্ধ হয়ে যায়। এখন দেশটি ফের মিশন চালু করতে চায়।

বেনসালাহর উদ্ধৃতি দিয়ে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, আমরা ঢাকায় আমাদের মিশনটি পুনরায় খুলব। আমরা মনে করি, বিভিন্ন ইস্যুতে, বিশেষ করে ব্যবসা ও রাজনৈতিক ক্ষেত্রে আমরা একই অবস্থানে রয়েছি এবং আমরা বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক বাড়াতে চাই। বাংলাদেশে আলজেরিয়ার মিশন পুনরায় চালুর সিদ্ধান্তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আলজেরিয়ার প্রেসিডেন্টকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, এ বিষয়ে সরকার সব ধরনের সহযোগিতা করবে। শেখ হাসিনা ন্যাম সম্মেলনে যোগদান উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আলজেরিয়া সফর এবং একইসঙ্গে তার নিজের সফরের কথাও স্মরণ করেন।



 

Show all comments
  • Mohammed Monzurul Hoque ২৭ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৩৯ এএম says : 2
    বঙ্গবন্ধুর নামে কোন জায়গার নাম করে বঙ্গবন্ধুর কিছু আসে যাবে না বরঞ্চ ঐ জায়গা সম্মানিত হয়েছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Shah Newaz ২৭ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৩৯ এএম says : 0
    ইন্ডিয়াতেও আছে বঙ্গবন্ধুর নামে রাস্তা।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Abdur Rahim ২৭ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৩৯ এএম says : 0
    ভালো কাজ,খারাপ না!কিন্তু ফিলিস্তিনকে সমর্থন দেয়া চাই।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohmmed Naim ২৭ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৪০ এএম says : 0
    "Love is example"
    Total Reply(0) Reply
  • Mamun Md. Golam Mostafa ২৭ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৪২ এএম says : 0
    ফিলিস্তিন তো ভারতের বন্ধু নয়; ইসরাইল ভারতের বন্ধু, সত্যিকারের বন্ধু।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Azharul Islam ২৭ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৪৮ এএম says : 0
    বহির বিশ্ব শেখ মজিবুর রহমান সাহেব কে যেভাবে সম্মান করে আমরা বাংগালীরা কিন্তু সেইভাবে সম্মান করি না এর বাস্তব উদাহরণ বর্তমানে দেশে যারা দুর্নীতি করে ৮০/৯০% ব্যক্তি মুজিব কোড বা উনার নাম বিক্রি করে দুর্নীতি করে।
    Total Reply(0) Reply
  • Zubaer Al Mamun ২৭ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৪৮ এএম says : 1
    বঙ্গবন্ধু ফিলিস্তিন জনগনের পাশে থাকার অঙ্গিকার ব্যাক্ত করে বক্তব্য দিয়েছিলেন। তিনি সবসময় ফিলিস্তিন জনগনের পাশে ছিলেন।
    Total Reply(0) Reply
  • মুহম্মদওয়ালীউল্লাহ্ ২৭ অক্টোবর, ২০১৯, ৭:০৯ এএম says : 0
    বঙ্গবন্ধুর নামে সড়ক দিলে ভালো।
    Total Reply(0) Reply
  • As iq ২৭ অক্টোবর, ২০১৯, ১১:৫৯ এএম says : 0
    The pride of the bangalis
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ