Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ২২ নভেম্বর ২০১৯, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

শ্রীলঙ্কার লজ্জার রেকর্ড

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০০ এএম

পাকিস্তানকে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে পা রেখেছিলো উড়ন্ত শ্রীলঙ্কা। এবার হোম সিরিজে উড়ন্ত সেই লঙ্কানদের মাটিতে নামাল অজিরা। অ্যাডিলেডে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ১৩৪ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিক দল। তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেল ফিঞ্চের দল। জন্মদিনে ডেভিড ওয়ার্নারের প্রথম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি শতকে ২৩৩ রানের পাহাড় দাঁড় করায় অস্ট্রেলিয়া। জবাবে মাত্র ৯৯ রানেই শেষ হয় লঙ্কানদের ইনিংস।

টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে ঝড়ো সুচনা দুই অজি ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ এবং ডেভিড ওয়ার্নারের। উদ্বোধনী জুটিতেই ১২২ রানের সংগ্রহ গড়ে অজিরা। মাত্র ৩৬ বলে ব্যক্তিগত ৬৪ রানে সানদাকানের বলে আউট ফিঞ্চ ফিরলে ভাঙে উদ্বোধনী জুটি। তবে অন্য প্রান্তে তখনও ব্যাট ঘোরাচ্ছিলেন ডেভিড ওয়ার্নার। ফিঞ্চ আউট হয়ে ফিরলে ম্যাক্সওয়েলকে সাথে নিয়ে ১০৭ রানে জুটি গড়েন ওয়ার্নার। গতকাল ডেভিড ওয়ার্নারের ৩৩তম জন্মদিন। আর ক্যারিয়ারের প্রথম টি-টোয়েন্টি শতক পূর্ণ করার জন্য বেছে নিয়েছিলেন এই বিশেষ দিনটিকেই। ব্যাট হাতে ৫৬ বল মোকাবিলা করে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে নিজের প্রথম শতক তুলে নিলেন। শতকের এই ইনিংসে ১০টি চার এবং ৪টি ছয় ছিল ওয়ার্নারের।

শতক হাঁকানো ওয়ার্নারের সাথে ঝড়ো ইনিংস খেলেছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েলও। মাত্র ২৮ বলে করেছেন ৬২ রান ইনিংসে ছিল ৭টি চার এবং ৩টি ছয়। শেষ পর্যন্ত ওয়ার্নার অপরাজিত থাকেন ১০০ রানেই। আর অস্ট্রেলিয়া সংগ্রহ করে ২ উইকেট হারিয়ে ২৩৩ রান।

ওয়ার্নারের রেকর্ডের দিনে আরও রেকর্ড গড়েছেন লঙ্কান পেসার কাসুন রজিথা। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ খরুচে বোলারদের তালিকায় শীর্ষস্থান দখল করে নিলেন এই লঙ্কান। অজিদের বিরুদ্ধে ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৭৫ রান দেন রজিথা। তার আগে এই তালিকায় শীর্ষস্থানে ছিলেন চেক প্রজাতন্ত্রের বোলার তুনাহান তুরান, তিনি ৪ ওভারে দিয়েছিলেন মোট ৭০ রান।

বিশাল রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে অজি বোলারদের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি লঙ্কান ব্যাটসম্যানরা। লঙ্কানদের স্কোরবোর্ডে মাত্র ১ রান যোগ হওয়ার পরেই প্রথম উইকেট হারায়। ওপেনার কুশল মেন্ডিস রানের খাতা খোলার আগেই শিকার হন মিচেল স্টার্কের। এরপর নিয়মিত বিরতিতেই উইকেট হারাতে থাকে সফরকারীরা। দলীয় রান ১ হতেই টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যান ফিরে যান সাঁজঘরে। এরপর কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন কুশল পেরেরা এবং দাসুন শানাকা। তবে স্কোরবোর্ডে ৫০ পূর্ণ হতে না হতেই বিদায় নিতে হয় দুইজনকেই। ১১তম ওভারে ৫০ রানে লঙ্কানদের পাঁচ ব্যাটসম্যান ফিরেছেন আউট হয়ে।
অপেক্ষা তখন কেবল অজিদের জয়ের এবং লঙ্কানদের হারের ব্যবধান জানার। অ্যাডাম জাম্পার তিন উইকেট, মিচেল স্টার্ক এবং প্যাট কামিন্সের দু’টি করে উইকেটে নির্ধারিত ২০ ওভারে লঙ্কানদের ইনিংস শেষ হয়ে ৯ উইকেট হারিয়ে ৯৯ রানে। আর এতেই অজিদের ১৩৪ রানের বড় ব্যবধানের জয় নিশ্চিত হয়।
অস্ট্রেলিয়া : ২০ ওভারে ২৩৩/২ (ফিঞ্চ ৬৪, ওয়ার্নার ১০০*, ম্যাক্সওয়েল ৬২, টার্নার ১*; মালিঙ্গা ০/৩৭, সান্দাকান ১/৪১, হাসারাঙ্গা ০/৪২, শানাকা ১/১০)। শ্রীলঙ্কা : ২০ ওভারে ৯৯/৯ (গুনাথিলাকা ১১, মেন্ডিস ০, রাজাপাকসে ২, কুসল ১৬, ফার্নান্দো ১৩, শানাকা ১৭, হাসারাঙ্গা ৫, সান্দাকান ৬, মালিঙ্গা ১৩*, রাজিথা ০, প্রদীপ ৮*; স্টার্ক ২/১৮, রিচার্ডসন ০/২১, কামিন্স ২/২৭, জাম্পা ৩/১৪, অ্যাগার ১/১৩)।
ফল : অস্ট্রেলিয়া ১৩৪ রানে জয়ী।
ম্যাচসেরা : ডেভিড ওয়ার্নার (অস্ট্রেলিয়া)।
সিরিজ : ৩ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া ১- তে এগিয়ে।

টি-টোয়েন্টিতে রানের ব্যবধানে বড় জয়
বিজয়ী দল প্রতিপক্ষ লক্ষ্য ব্যবধান
চেক রিপাবলিক তুর্কি ২৭৯ ২৫৭
রোমনিয়া তুর্কি ২২৭ ১৭৩
শ্রীলঙ্কা কেনিয়া ২৬১ ১৭২
পাকিস্তান উইন্ডিজ ২০৪ ১৪৩
ভারত আয়ারল্যান্ড ২১৪ ১৪৩
ইংর‌্যান্ড উইন্ডিজ ১৮৩ ১৩৭
অস্ট্রিয়া লুক্সেমবার্গ ২৪০ ১৩৫
অস্ট্রেলিয়া শ্রীলঙ্কা ২৩৪ ১৩৪
টি-টোয়েন্টিতে সবচেয়ে খরুচে বোলার
বোলার দল প্রতিপক্ষ ওভার রান উইকেট
রাজিথা শ্রীলঙ্কা অস্ট্রেলিয়া ৪ ৭৫ ০
তুরান তুর্কি চেক রিপাবলিক ৪ ৭০ ১
ম্যককার্থি আয়ারল্যান্ড আফগানিস্তান ৪ ৬৯ ০
অ্যাবত দক্ষিণ আফ্রিকা উইন্ডিজ ৪ ৬৮ ১
অ্যান্ডারসন ইংল্যান্ড অস্ট্রেলিয়া ৪ ৬৪ ১

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শ্রীলঙ্কা

২৭ আগস্ট, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ