Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬, ০৩ রজব ১৪৪১ হিজরী

চুক্তি মোতাবেক কুর্দি যোদ্ধারা তুর্কি সীমান্ত ছাড়ছে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০৪ পিএম | আপডেট : ১২:০৬ পিএম, ২৮ অক্টোবর, ২০১৯
উত্তর সিরিয়ার তুর্কি সীমান্ত থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করে নিচ্ছে কুর্দি নেতৃত্বাধীন সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্স (এসডিএফ)। রাশিয়ার সঙ্গে তুরস্কের সম্পাদিত চুক্তি মোতাবেক এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করছে কুর্দিরা। খবর বিবিসি ও রয়টার্সের।
ওই চুক্তি অনুযায়ী মঙ্গলবারের মধ্যে তুর্কি সীমান্ত থেকে উত্তর সিরিয়ার ৩২ কিলোমিটার ভেতরে সরে যাওয়ার কথা কুর্দি যোদ্ধাদের।
এক বিবৃতিতে এসডিএফ বলেছে, ‘চুক্তির শর্ত মোতাবেক এসডিএফ সদস্যদের উত্তর সিরিয়ার তুর্কি-সিরিয়া সীমান্ত থেকে সরিয়ে নতুন জায়গায় মোতায়েন করা হচ্ছে। রক্তপাত থামানো এবং তুরস্কের হামলা থেকে ওই এলাকার বাসিন্দাদের রক্ষা করতে এটা করা হচ্ছে।’
একই সঙ্গে দামেস্কের বাশার আল-আসাদ সরকারের প্রশাসন এবং উত্তর সিরিয়ার কুর্দি নেতৃত্বাধীন প্রশাসনের মধ্যে ‘গঠনমূলক সংলাপে’ সহযোগিতা করতে এসডিএফ রাশিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বলেও রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়।
রাশিয়া বাশার আল-আসাদের ঘনিষ্ঠ সহযোগী। সিরিয়ার চলমান আট বছরের গৃহযুদ্ধে প্রতিপক্ষের কাছে হারানো বিশাল ভূখন্ড রুশ সামরিক বাহিনীর সহযোগিতায় পুনরুদ্ধারে সমর্থ হয়েছে আসাদ সরকার।
সিরীয় শরণার্থীদের প্রত্যাবাসনে ‘সেফ জোন’ প্রতিষ্ঠা এবং সীমান্ত থেকে কুর্দি যোদ্ধাদের সরিয়ে দিতে গত ৯ অক্টোবর উত্তর সিরিয়ায় অভিযান শুরু করে তুরস্ক। সিরিয়ার গৃহযুদ্ধের কারণে বাস্তুুচ্যুত ৫০ লাখ সিরীয়র মধ্যে ৩৬ লাখই তুরস্কে আশ্রয় নিয়েছেন।
এরপর গত ২২ অক্টোবর সোচিতে রাশিয়া ও তুরস্ক সই হওয়া চুক্তি অনুযায়ী পাঁচ দিনের জন্য অভিযান বন্ধ করে তুর্কি বাহিনী। আর এ সময়ের মধ্যে তুরস্কের সিরীয় সীমান্ত থেকে ৩২ কিলোমিটার দূরে সরে যাবে এসডিএফ নেতৃত্বাধীন পিকেকে এবং ওয়াইপিজি যোদ্ধারা। সীমান্তে টহল দেবে রুশ ও তুর্কি বাহিনী।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ