Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার , ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ০৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

যুক্তরাষ্ট্র প্রতিদিন ইরাকের ১০ লাখ ব্যারেল তেল লুট করছে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:২৭ পিএম | আপডেট : ১২:৪৬ পিএম, ২ নভেম্বর, ২০১৯

ইরানের বিশিষ্ট আলেম আয়াতুল্লাহ মোওয়াহহেদি কেরমানি বলেছেন, মার্কিন সরকার বিগত ১৬ বছর ধরে প্রতিদিন ইরাকের দশ লাখ ব্যারেলেরও বেশি জ্বালানি তেল যুদ্ধের ক্ষতিপূরণের নামে লুট করছে এবং মুসলিম এই দেশটির অর্থনৈতিক সংকটের অন্যতম প্রধান কারণ হলো আমেরিকা।

গতকাল শুক্রবার জুমার নামাজের খুতবায় এমন মন্তব্য করে আয়াতুল্লাহ মোওয়াহহেদি কেরমানি বলেন, ইরাকের অর্থনৈতিক সংকটের যুক্তরাষ্ট্রই দায়ী। ইসলামের শত্রুরা এ অঞ্চলের দেশগুলোতে গণআন্দোলনের নামে দাঙ্গা-হাঙ্গামা বাঁধানোর অপচেষ্টায় লিপ্ত।

যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম ‘শত্রু রাষ্ট্র’ হিসেবে পরিচিত ইরানের এই ধর্মীয় নেতার অভিযোগ ইরাকে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত প্রকাশ্যেই দেশটিতে সম্প্রতি শুরু হওয়া বিক্ষোভে উসকানি দিচ্ছেন। তিনি বিক্ষোভে সহিংসতা নিয়ন্ত্রণ না করতে ইরাকের পুলিশ বাহিনীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছেন।

শুক্রবার জুমার নামাজের সময় ইরানের রাজধানী তেহরানের সবচেয়ে বড় মসজিদের অস্থায়ী এই খতিব আরও বলেন, পশ্চিমাদের মদদপুষ্ট কোনও কোনও রাজনৈতিক গোষ্ঠী কারবালা ও বসরায় অপরাধযজ্ঞ চালিয়েছে। ইরাকের জনগণের উচিত এই অপরাধীদের থেকে দূরে থাক।

ইরাকের সংকট সমাধানে বৈধ পন্থার আশ্রয় নেয়ার ওপর গুরুত্ব দিয়ে তিনি বলেন, ইরাকের জনগণ দেশটির ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ ও বৈধ সরকারের তত্ত্বাবধানে সংকট উত্তরণে সক্ষম। উল্লেখ্য, গত ১ সেপ্টেম্বর থেকে কর্মসংস্থান, সরকারি পরিষেবা এবং দুর্নীতির অভিযোগে রাজপথে হাজারো বিক্ষোভকারী।

এসব বিক্ষোভকারী নির্দিষ্ট কোনও রাজনৈতিক দলের অনুসারী না। তারা সংগঠিত হয়েই রাষ্ট্রের এমন নাজুক অবস্থানর বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। তাদের মধ্যে বেশিরভাগ তরুণ। দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর দমনাভিযানে এখন পর্যন্ত ওই বিক্ষোভে দুই শতাধিক নিহত হয়েছেন।

তেহরানের জুমা নামাজের অস্থায়ী খতিব লেবাননের সাম্প্রতিক ঘটনা প্রসঙ্গে বলেছেন, জনগণের জীবন-যাত্রা ও রুটি-রুজির সমস্যার প্রতি সরকারের উদাসীনতাই লেবাননের গণ-বিক্ষোভের মূল কারণ।

তিনি বলেন, লেবাননের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ থেকে বোঝা যায় দেশটির কোনো কোনো রাজনৈতিক গোষ্ঠী ইসরায়েল, মার্কিন ও কোনো কোনো আরব শাসকগোষ্ঠীর স্বার্থকে জনগণের স্বার্থের চেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ