Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার , ২৯ জানুয়ারী ২০২০, ১৫ মাঘ ১৪২৬, ০৩ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

জাবিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার নিন্দা জানিয়েছে ঢাবি সাদা দল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ নভেম্বর, ২০১৯, ৭:৪১ পিএম

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনরত শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা এবং এর জন্য দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাদা দলের শিক্ষকরা। বুধবার এক বিবৃতিতে শিক্ষকরা বলেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিচালিত উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগে ভিসির পদত্যাগের দাবিতে গত তিন মাস ধরে দুনীতি বিরোধী মঞ্চের ব্যানারে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করে আসছে। কিন্তু এ বিষয়ে কোনো প্রতিকার না হওয়ায় শিক্ষার্থী ও শিক্ষকবৃন্দ গত সোমবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে ভিসির বাসভবন ঘেরাও করে রেখেছিলেন। মঙ্গলবার বেলা প্রায় ১২টার দিকে আন্দোলনরতদের ওপর ক্ষমতাসীন ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সন্ত্রাসী হামলা চালায়। এতে বেশ কয়েকজন শিক্ষক-শিক্ষার্থী আহত হয়। আমরা বিস্ময়ের সাথে লক্ষ্য করলাম যে, এ ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ না করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ফারজানা ইসলাম এ ঘটনাকে সমর্থন করেন এবং ছাত্রলীগের এ সন্ত্রাসী কর্মকাÐকে “গণঅভ্যুত্থান” আখ্যা দিয়ে এর জন্য তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। শুধু তাই নয়, আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করে দুর্নীতির বিষয়টি আড়াল করার জন্য তিনি বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেন। আমরা মনে করি, এ ধরনের হীন ও নিন্দনীয় কাজ করে তিনি ভিসি পদে থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়েছেন। আমরা তাঁর এ ধরনের বক্তব্য ও আচরণেরও তীব্র নিন্দা জানাই। শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখা এবং শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের স্বার্থে আমরা অবিলম্বে তাঁর পদত্যাগ/অপসারণ দাবি করছি। একই সাথে সুষ্ঠু নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে হামলায় জড়িত ছাত্রনামধারী সন্ত্রাসীদের দ্রæত বিচারের আওতায় আনার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মর্যাদা সমুন্নত রাখার জন্য দুর্নীতির অভিযোগ খতিয়ে দেখার জন্য একটি উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন তদন্ত কমিটি গঠনের জন্যও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানান।

সাদা দলের আহŸায়ক প্রফেসর ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম স্বাক্ষরে দেড় শতাধিক শিক্ষক বিবৃতি দিয়েছেন। তারা হলেন- প্রফেসর মো. লুৎফর রহমান, প্রফেসর ড. মোঃ মোর্শেদ হাসান খান, প্রফেসর ড. সদরুল আমিন, প্রফেসর ড. মো. সিরাজুল ইসলাম, প্রফেসর ড. মোঃ আখতার হোসেন খান, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ছিদ্দিকুর রহমান খান, প্রফেসর ড. মো. আবুল কালাম সরকার, এম এ কাউসার প্রফেসর ড. মো. শফিকুর রহমান, প্রফেসর ড. মো. শহীদুল ইসলাম, প্রফেসর ড. মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম, ড. মো. শহিদুল ইসলাম, মো. আল আমিন, প্রফেসর ড. এ এস এম আমানুল্লাহ, প্রফেসর ড. দিল রওশন জিন্নাত আরা নাজনীন, প্রফেসর ড. মামুন আহমেদ, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আলমোজাদ্দেদী আলফেছানী, প্রফেসর ড. এটিএম জাফরুল আজম, প্রফেসর ড. এস. এম. মোস্তফা আল-মামুন, ড. শেখ মনির উদ্দিন, ড. মোঃ মহিউদ্দিন, প্রফেসর ড. মোঃ গোলাম রব্বানী, প্রফেসর ড. মো: আবদুর রশীদ, প্রফেসর ড. মোঃ হাসান উজ্জামান, প্রফেসর মো. আতাউর রহমান বিশ্বাস, প্রফেসর মুক্তার আলি, প্রফেসর ড. মো. নুরুল আমিন, ইসরাফিল প্রামাণিক, প্রফেসর ড. মোঃ মেহেদী মাসুদ, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ, প্রফেনর মো. মাহফুজুল হক, প্রফেসর ড. লায়লা নূর ইসলাম, প্রফেসর ড. কামরুজ্জামান, প্রফেসর ড. মোঃ এমরান কাইয়ুম, প্রফেসর ড. হায়দার আলী, প্রফেসর ড. মো. এনামুল হক, প্রফেসর ড. দিলীপ কুমার বড়ূয়া, প্রফেসর ড. মো. মোশাররফ হোসাইন ভূঁইয়া, প্রফেসর ড. মো. আসলাম হোসেন, রাশীদ মাহমুদ, প্রফেসর আ কা ফিরোজ আহমদ, প্রফেসর ড. মোঃ নুরুল ইসলাম, মোহাম্মদ সফিউল­্যাহ, প্রফেসর ড. মোঃ সাইফুল ইসলাম, প্রফেসর ড. বোরহান উদ্দীন খান, প্রফেসর মো. মাহ্ফুজুল ইসলাম, প্রফেসর তাহমিনা আখতার, প্রফেসর ড. জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, প্রফেসর ড. শেখ নজরুল ইসলাম, প্রফেসর ড. মোঃ আতাউর রহমান মিয়াজী, প্রফেসর মোঃ মুজাহিদুল ইসলাম, প্রফেসর ড. ছিদ্দিকুর রহমান নিজামী, প্রফেসর আহমেদ জামাল আনোয়ার, প্রফেসর এ এস এম মহিউদ্দিন, প্রফেসর এ বি এম শহিদুল ইসলাম, প্রফেসর ড. সৈয়দ আলী আহসান, প্রফেসর ড. নেভিন ফরিদা, প্রফেসর ড. মোবাশ্বের মোনেম, প্রফেসর ড. মুসলেহ উদ্দিন তারেক, মোঃ মাজহারুল আনোয়ার, প্রফেসর ড. মোঃ আবদুর রব, প্রফেসর ড. মোঃ আবদুল কাইয়ুম, প্রফেসর ড. মোঃ আবুল বাসার, কাওসার হোসেন টগর, প্রফেসর ড. মোঃ আশরাফুল ইসলাম চৌধুরী, প্রফেসর ড. মোঃ আনিছুর রহমান খান, প্রফেসর ড. মোঃ কামরুল এহসান, প্রফেসর ড. মোঃ সায়েদুল ইসলাম, প্রফেসর ড. খোন্দকার মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ, প্রফেসর ড. আমিনুল ইসলাম ভূইয়া, প্রফেসর ড. মোঃ খলিলুর রহমান, প্রফেসর ড. বাবুনা ফায়েজ, প্রফেসর ড. এ. এম. সরওয়ার উদ্দিন চৌধুরী, প্রফেসর ড. এ.এ. মাহবুব উদ্দিন চৌধুরী, প্রফেসর শামীম শামছি, প্রফেসর ড. মাহমুদ ওসমান ইমাম, প্রফেসর ড. মুস্তাফিজুর রহমান, প্রফেসর ড. রাজিয়া বেগম, প্রফেসর ড. সাহিদা ইসলাম, প্রফেসর ড. ছগীর আহমেদ, প্রফেসর ড. জাহিদুল ইসলাম, প্রফেসর ড. সিরাজুল হক, প্রফেসর ড. মো. শামসুল ্আলম, মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান, প্রফেসর ড. ইউসুফ ইবনে হোসাইন, প্রফেসর ড. মো. মাসুদ আলম, ড. শেখ মো. ইউসুফ, আবদুল আজিজ, প্রফেসর ড. মোঃ আনোয়ারুল আজিম আখন্দ, ড. শাহনুর হোসাইন, মিসেস সাবরিনা শাহনাজ, রেজা আসাদ হুদা অনুপম, ড. মো আজহারুল ইসলাম, প্রফেসর ড. মোঃ আব্দুল মজিদ, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন, প্রফেসর ড. মোঃ আবদুল করিম, প্রফেসর ড. মোঃ আবদুস সালাম, প্রফেসর ড. মোঃ আখতারুজ্জামান, ড. মোঃ নাদিরুজ্জামান মন্ডল, প্রফেসর ড. মহব্বত আলী, প্রফেসর ড. মোঃ খলিলুর রহমান, প্রফেসর ড. মোঃ জাকির হোসেন খান, প্রফেসর ড. আফরোজ সুলতানা চ্যামন, প্রফেসর ড. আবদুস সালাম, ড. আরিফ বিল্লাহ, প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান, প্রফেসর ড. এ এইচ এম জুলফিকার আলী, ড. মোঃ সাইফুল ইসলাম, ড. মুহাম্মদ মেজবাহ উল ইসলাম, ড. মু: মুছলেহ উদ্দীন, প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আবদুল লতিফ, ড. মুহাম্মদ ইউসুফ, ড. মুহাম্মদ মুসলেহ উদ্দিন, ড. মুহাম্মদ শামছুল আলম, ড. শাকিল উদ্দিন আহমেদ, ড. মুর্শিদা বেগম, মৌটুসী তানহা, ড. মোহাম্মদ আজহারুল ইসলাম, ড. মোহাম্মদ শরীফুর রহমান, ড. মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম, মোহাঃ জাহাঙ্গীর আলম, মোঃ আবুল কায়সার, ড. মোঃ রুহুল আমিন, মোঃ রফিকুল ইসলাম, মোঃ সফিকুল ইসলাম, সেহেলী পারভীন, প্রফেসর ড. গোলাম রব্বানী, মোহাম্মদ দাউদ খান, মোহাম্মদ আবু ইউসুফ, মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ, মোহাম্মদ ইলিয়াস, মোহাম্মদ মামুন চৌধুরী, মোহাম্মদ ওমর ফারুক, ড. মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম, মোহাম্মদ হাফিজ উদ্দিন ভ‚ইয়া, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, ড. মোঃ বেলাল হোসেন, মোঃ মেহেদী হাসান খান, ড. মিরাজ কুবাদ চৌধুরী, প্রফেসর ড. শাহ এমরান, প্রফেসর ড. সেলিম রেজা, প্রফেসর ড. হাফিজউদ্দিন ভূঁইয়া, মোঃ আবদুল কাদির, মোঃ আলমগীর হোসেন, মোঃ আজহারুল ইসলাম, ড. মোঃ তাজুল ইসলাম, ড. মোঃ মিজানুর রহমান, মোঃ নুরুল ইসলাম, প্রফেসর ড. মোঃ রবিউল ইসলাম, মোঃ রবিউল হক, মোঃ কুতুব উদ্দিন, অধ্যাপক ড. কাজী মোস্তাক গাউসুল হক, ড. মোঃ জসিম উদ্দীন, আ ন ম সালাহ উদ্দিন, প্রফেসর ড. হাসান তালুকদার, মো. রাশেদুজ্জামান, কাজী মাহবুবুর রহমান, আবদুস সালাম, মোঃ আলমগীর হোসেন সম্রাট, আবু আসাদ চৌধুরী, জনাব আমিরুস সালাত, প্রফেসর ড. নাজমুজ্জামান ভ‚ইয়া, মিসেস নুসরাত ফাতেমা, ড. এ টি এম মোস্তফা কামাল, মাহবুব কায়সার, ড. মুহাম্মদ রুহুল আমিন, ড. মুহাম্মদ জহিরুল ইসলাম, মোঃ নুরুল আমিন, ড. যুবাইর মোহাম্মদ এহসানুল হক, ওমর ফারুক, সাইফুদ্দিন আহমেদ, ড. হাফিজ মুজতবা রিজা আহমাদ, প্রফেসর ড. মো. সানাউল্লাহ, মো. রফিকুল ইসলাম, ড. মঈনুল ইসলাম, ড. মু আরিফুল হক, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, ড. নকীব মুহাম্মদ নসরুল্লাহ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঢাবি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ