Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার , ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ০৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটোর তীব্র সমালোচনা ফরাসি প্রেসিডেন্টের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটোর (দ্য নর্থ আটলান্টিক ট্রিটি অর্গানাইজেশন) তীব্র সমালোচনা করেছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ। তিনি সংস্থাটিকে ‘জীবন্মৃত’ (ব্রেইন ডেড) হিসেবে বর্ণনা করেছেন। যুক্তরাজ্যভিত্তিক ম্যাগাজিন ইকোনোমিস্টকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এই সমালোচনা করেন ম্যাখোঁ। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র তাদের দায়বদ্ধতা কমিয়ে ফেলেছে। সিরিয়া থেকে সেনা প্রত্যাহারের আগে ন্যাটোর সঙ্গে পরামর্শ করতে ব্যর্থ হয়েছে মার্কিন কর্তৃপক্ষ।

ন্যাটোর সর্ম্পকে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁ বলেন, সমন্বিত প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় ন্যাটো সদস্যগুলোর দায়বদ্ধতা আছে কি না তা নিয়ে সন্দেহ আছে। বর্তমানে আমরা যা দেখছি তা হলো ন্যাটোর মানসিক মৃত্যু ঘটেছে। তিনি বলেন, জোট রক্ষায় যুক্তরাষ্ট্রের ওপর আর নির্ভর করতে পারছে না ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) দেশগুলো। এই মুহ‚র্তে ন্যাটোতে যুক্তরাষ্ট্রের দায়বদ্ধতা নিয়ে আমাদের আলোচনা করা উচিৎ। ট্রান্স-আটলান্টিক এ সামরিক জোটের ব্যাপারে এর প্রধান পৃষ্ঠপোষক যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রহের ঘাটতিও দেখছেন তিনি। ইউরোপের রাষ্ট্রগুলোর এখন আর নিজেদের প্রতিরক্ষায় যুক্তরাষ্ট্রের দিকে তাকিয়ে থাকা উচিত হবে না মন্তব্য করে ম্যাখোঁ নিজেদের মহাদেশকেই ‘ভ‚রাজনৈতিক শক্তি’ হিসেবে বিবেচনা করার পরামর্শ দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, কোল্ড ওয়ার বা স্নায়ু যুদ্ধের সময় ১৯৪৯ সালে আটলান্টিকের এপার-ওপারের ১২টি দেশ মিলে ন্যাটো গঠিত হয়েছিল। পরে আরও দেশ এ জোটে যোগ দেয়। মার্কিন নেতৃত্বাধীন এ জোটটি আগামী মাসে লন্ডনে তার প্রতিষ্ঠার ৭ দশক উদ্যাপন করতে যাচ্ছে। এই সংস্থার অনুচ্ছেদ ৫ অনুযায়ী, জোটের যেকোনো সদস্যের ওপর কোনো আক্রমণের সমন্বিত জবাব দেওয়ার কথা রয়েছে। তবে এটি এখন অনেকটাই অকার্যকর। ২০১৬ সালে ডনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর থেকেই নেটোর অন্যান্য অংশীদাররা যুক্তরাষ্ট্রের ওপর অনেক বেশি মাত্রায় নির্ভরশীল হয়ে আছে দাবি করে সামরিক জোটের পেছনে অন্যদের খরচের হার বাড়ানোর তাগিদ দিয়ে আসছেন। অক্টোবরে সিরিয়া থেকে তার সৈন্য প্রত্যাহারের হঠাৎ ঘোষণাও নেটোর ইউরোপীয় সদস্যদের বিস্মিত করেছিল।

সাম্প্রতিক সময়ে ট্রাম্প প্রশাসনের সঙ্গে ট্রান্স-আটলান্টিক সামরিক জোটটির নেতাদের টানাপোড়েনের বিষয়টি অনুমান করা গেলেও এবারই কোনো প্রভাবশালী দেশের প্রেসিডেন্ট ন্যাটোকে ‘ব্রেইন ডেড’ বললেন। তবে ম্যাখোঁর এই মন্তব্য প্রত্যাখ্যান করেছে জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মের্কেল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ