Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১০ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

মুসল্লিদের যাতায়াত হাঁটু পানি ভেঙে

আশাশুনির পশ্চিম পুইজালা মসজিদ

জি এম মুজিবুর রহমান, আশাশুনি (সাতক্ষীরা) থেকে | প্রকাশের সময় : ৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:৩৪ এএম


: আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের পশ্চিম পুইজালা পাঞ্জেগানা মসজিদের দুরাবস্থা চরম আকার ধারণ করেছে। যাতয়াতের পথ পনিতে তলিয়ে থাকায় মুসল্লিদের পক্ষে মসিজদে যাতয়াত করাও কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে।

কেয়ারের রাস্তার পাশে দুর্গম এলাকার মুসল্লিদের পাঁচ ওয়াক্ত সালাত আদায়ের জন্য মসিজদটি ২০১৩ সালে নির্মাণ করা হয়। গরীব এলাকার মুসল্লিরা অতিকষ্টে মসজিদটি নির্মাণ কাজে হাত দেন। মসজিদের নামে ০৮ শতক জমি দান করা হয়েছে। মাটির দেওয়াল, গোলপাতার বেড়া ও ছাউনি দিয়ে কোন রকমে সালাত আদায়ের উপযোগী করে মসজিদটি নির্মাণ করা হয়েছে। বাঁশের চটা দিয়ে বারান্দা ঘিরে সংরক্ষণ করা হয়। কিন্তু দীর্ঘ প্রায় ৭ বছরে সেখানে আর তেমন কিছু করা সম্ভব হয়নি। এ পর্যন্ত সরকারি কোন সহায়তাও তাদের ভাগ্যে জোটেনি। ফলে দেওয়ালের মাটি খসে খসে পড়ে যাচ্ছে। ঘেরাবেড়া, ছাউনির গোলপাতা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে বা গেছে।

তারপরও মুসল্লিরা সেখানে সালাত আদায় করতে পারছে এতেই তারা সন্তুষ্ট। কিন্তু মহাবিপদ হয়ে দেখা দিয়েছে কেয়ারের রাস্তা নীচু হওয়ায় বর্ষা মৌসুমে তলিয়ে থাকার কারনে। ফলে মুসল্লিরা হাটু পানি ঠেলে মসজিদে যাতয়াতে বাধ্য হচ্ছে। এতে করে সকল মুসল্লি, বিশেষ করে বয়স্ক ও ছোটরা মসজিদে যেতে পারছেনা। এলাকাবাসী মসজিদটির উন্নয়নে আর্থিক সহযোগিতাসহ টিন বরাদ্দ দেওয়া, কেয়ারের রাস্তায় মাটি দিয়ে উচু করে সেখানে ইটের রাস্তার ব্যবস্থা করার জন্য ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা চেয়ারম্যানসহ উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ