Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

রাসুল (সা.)’র আদর্শ বাস্তবায়নের মাধ্যমেই সমাজ ও রাষ্ট্র থেকে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূল করা সম্ভব

রামুতে ঈদে মিলাদুন্নবী (সা) জুলুসে বক্তারা

রামু (কক্সবাজার) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১০ নভেম্বর, ২০১৯, ৬:৪৮ পিএম

বিশ্বব্যাপী রাসুল (সা.)’র আদর্শ বাস্তবায়নের মাধ্যমেই সমাজ ও রাষ্ট্র থেকে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূল করা সম্ভব। রামুতে জশনে জুলুসে ঈদে মিলাদুন্নবী (সা) তে বক্তারা এ কথাগুলো বলেন।
ঐতিহাসিক ১২ রবিউল আউয়াল পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা) রামুতে যথাযোগ্য মর্যাদায় ও ধর্মীয় ভাব গাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে উদযাপিত হয়। আনজুমানে নকশবন্দিয়া মুজাদ্দেদিয়া বাংলাদেশ এবং আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত কক্সবাজার ও রামু উপজেলা শাখার ব্যবস্থাপনায় ঐতিহাসিক ১২ রবিউল আউয়াল পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা) উদযাপিত হয়।

এ উপলক্ষে ১০ নভেম্বর সকাল ৯টায় রামু হাসপাতাল গেইট সংলগ্ন মাসুমিয়া ইসলামিয়া সুন্নিয়া মাদরাসা ও এতিমখানা প্রাঙ্গন হতে রাজারকুল মাসুমিয়া ইসলামিয়া সুন্নিয়া আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত কক্সবাজার জেলার সচিব ও আনজুমানে নকশবন্দিয়া মুজাদ্দেদিয়া বাংলাদেশ কক্সবাজার জেলার সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা মুফতি সৈয়দ মোহাম্মদ উল্লাহ নকশাবন্দীর সদারতে জশনে জুলুস র‍্যালী বের করা হয়।

র‍্যালীটি রামু চৌমুহনী স্টেশন হয়ে,রামু উপজেলা গেইট হয়ে রামু বাইপাস চট্টগ্রাম কক্সবাজার হাইওয়ে সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় মাদরাসা প্রাঙ্গনে এসে সমাপ্ত হয়। পরে সেখানে ঈদে মিলাদুন্নবী (সা) এর গুরুত্ব ও তাৎপর্য নিয়ে মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

আনজুমানে নকশবন্দিয়া মুজাদ্দেদিয়া বাংলাদেশ রামু উপজেলা শাখার সহ সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেকের সঞ্চালনায় আলোচনায় বক্তারা বলেন, ১২ই রবিউল আওয়াল পৃথিবীতে আবির্ভূত হলেন সমগ্র মানবজাতির মুক্তির দূত হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)। তাঁর নবুওয়াতের আলোতে মাত্র ২৩টি বছরে আরবরা বিনির্মাণ করলো এক নতুন পৃথিবী। জীবনের ক্ষতস্থান থেকে যে উৎকট দুর্গন্ধ বের হচ্ছিল তা রাসুল (সাঃ) এর পরশে পরিবর্তিত হয়ে সুবাসিত আলোকবর্তিকায় পরিণত হল। তাই সামাজিক অবক্ষয় রোধ, অন্যায়-জুলুম ও অনৈতিকতার হাত থেকে বাংলাদেশকে রক্ষা করে ইনসাফপুর্ন, শান্তিময় ও সমৃদ্ধশালী করার জন্য আমাদেরও রাসুল (সাঃ) এর আদর্শকে অনুসরণ করতে হবে।
বক্তব্য রাখেন আনজুমানে নকশবন্দিয়া মুজাদ্দেদিয়া বাংলাদেশ কক্সবাজার জেলার সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ হোসাইন সানী,স্বাগত বক্তব্য রাখেন,আনজুমানে নকশবন্দিয়া মুজাদ্দেদিয়া বাংলাদেশ রামু উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মাস্টার মোহাম্মদ ছালামত উল্লাহ, বিআরডিবির চেয়ারম্যান শামসুল আলম, জোয়ারিয়ানালা চেয়ারম্যান কামাল শামসুদ্দিন আহমদ প্রিন্স,রাজারকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান, মুফতি আবদুর রশিদ হক্কানি, মাওলানা রেজাউল করিম,মাওলানা শোয়াইব উল্লাহ, মাওলানা জামাল উদ্দিন, মাওলানা কাজী আবু বকর সিদ্দিকী, মাওলানা সালেহ আহমদ,হাজী নুরুল ইসলাম,মোস্তফা মুবাশ্বের সাদেক লাবু,আবদুল আজিজ, আজিজুল ইসলাম।

জুলুসে ইসলামিক ফাউন্ডেশন রামু, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট,বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনা,ছাত্রসেনা,হিজরি নববর্ষ উদযাপন পরিষদ,রামু উপজেলা,গাউসিয়া কমিটি,বিভিন্ন মাদরাসা,মসজিদের খতিব ও ইমামবৃন্দ ও বিভিন্ন জনপ্রতিনিধিগণ জুলুসে অংশগ্রহণ করে।

মিলাদ, কিয়াম, মুনাজাত ও তাবারুক বিতরণের মধ্য দিয়ে মাহফিল সমাপ্ত হয়।



 

Show all comments
  • Zenaida Kibble ১১ নভেম্বর, ২০১৯, ১:০৯ এএম says : 0
    magnificent issues altogether, you simply won a new reader. What may you suggest in regards to your post that you simply made some days in the past? Any certain?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ