Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

ইসরায়েলকে দেয়া ছিটমহলের ইজারা বাতিল করল জর্দান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ নভেম্বর, ২০১৯, ২:৪৯ পিএম

ইসরায়েলের কাছে ইজারা দেয়া দু’টি ছিটমহলের ওপর জর্ডানের সার্বভৌমত্ব ঘোষণা করেছেন দেশটির রাজা দ্বিতীয় আব্দুল্লাহ। রবিবার মন্ত্রিসভার এক বৈঠকে এই ঘোষণা দিনে জর্ডানের রাজা।
এদিন রাজা বলেন, ২৫ বছর আগে তেল আবিবের সঙ্গে স্বাক্ষরিত এক দ্বিপক্ষীয় চুক্তির ভিত্তিতে ওই দুই ছিটমহল ইসরায়েলের কাছে ইজারা দেয়া হয়েছিল এবং সে চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় এর মালিকানা এখন জর্ডান ভোগ করবে।
ঘুমার ও আল-বাকুরা নামক ওই দুই ভূমির ‘প্রতি ইঞ্চির’ ওপর জর্ডানের সার্বভৌমত্ব ঘোষণা করেন রাজা আব্দুল্লাহ। ছয় বর্গ কিলোমিটার আয়তনের ছিটমহল ‘বাকুরা’ জর্ডানের উত্তরাঞ্চলীয় ইরবিদ প্রদেশে অবস্থিত। ইসরায়েলের নিয়ন্ত্রিত দখলীকৃত ফিলিস্তিনি ভূখন্ডের ‘কিনেরেত’ এলাকার দক্ষিণে অবস্থিত।
অন্যদিকে চার বর্গকিলোমিটার আয়তনের ‘ঘুমার’ জর্দানের দক্ষিণাঞ্চলীয় আকাবা প্রদেশের অংশ এবং ইসরায়েল অধিকৃত মৃত সাগরের দক্ষিণে অবস্থিত।
১৯৯৪ সালের ২৬ অক্টোবর ইসরায়েল ও জর্ডানের মধ্যে স্বাক্ষরিত ২৫ বছর মেয়াদি এক চুক্তির ভিত্তিতে ওই দুই খন্ড ভূমি তেল আবিবকে ইজারা দিয়েছিল জর্ডান। চুক্তিতে বলা হয়েছিল, কোনো পক্ষ আপত্তি না তুললে এর মেয়াদ শেষ হওয়ার পর তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে নবায়ন হয়ে যাবে। কিন্তু জর্ডান সে চুক্তি নবায়নে ইচ্ছুক নয় এবং বিষয়টি গত বছরের অক্টোবরে তেল আবিবকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে আম্মান।
রাজা আব্দুল্লাহ রবিবারে মন্ত্রিসভার বৈঠকে বলেন, ‘আমরা তেল আবিবকে জানিয়েছি যে, বাকুরা ও ঘুমার ইজারা দেয়ার চুক্তি আর নবায়ন হবে না।’
১৯৯৪ সালে দ্বিপক্ষীয় চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার পর থেকে এতদিন ইসরায়েলি কৃষকরা ওই দুই ভূমিতে চাষাবাদ করে আসছিল। কিন্তু রবিবার তাদেরকে ওই ছিটমহলে ঢুকতে দেয়া হয়নি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জর্দান
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ