Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

চট্টগ্রামে জশনে জুলুসে লাখো মানুষ

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১২ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে লাখো মানুষের অংশগ্রহণে চট্টগ্রামে ঐতিহ্যবাহী জশনে জুলুস (র‌্যালি) অনুষ্ঠিত হয়। ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে মানুষ রাস্তায় নেমে আসে। আনজুমান-এ-রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনায় ৪৮তম বিশাল এই জুলুসে নেতৃত্ব দেন আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ তাহের শাহ। তার সাথে ছিলেন আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ কাসেম শাহ ও আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ হামেদ শাহ। রোববার সকালে জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া মাদারাসা সংলগ্ন আলমগীর খানকাহ থেকে শুরু হওয়া জুলুসে নবীপ্রেমিক ধর্মপ্রাণ মানুষের ঢল নামে।
‘নারায়ে তাকবির-আল্লাহু আকবর’, নারায়ে রিসালাত-ইয়া রাসূল আল্লাহ’ শ্লোগানে মুখরিত হয় আকাশ-বাতাস। ধর্মপ্রাণ মানুষ হাতে কলেমা খচিত রঙিন ব্যানার, ফেস্টুন নিয়ে জুলুসে যোগ দেয়। মহানগরীর প্রতিটি পাড়া, মহল্লার পাশাপাশি বৃহত্তর চট্টগ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে সুন্নি জনতা জুলুসে শরিক হয়। ফুলে ফুলে সাজানো গাড়িতে জুলুসে অংশ নেন আল্লামা তাহের শাহসহ অতিথিবৃন্দ।
জুলুস উপলক্ষে গোটা নগরীকে সাজানো হয় বর্ণাঢ্য সাজে। আলমগীর খানকাহ থেকে শুরু হয়ে জুলুসটি বিবিরহাট, মুরাদপুর, মির্জাপুল, কাতালগঞ্জ, চকবাজার, প্যারেড কর্নার, সিরাজউদ্দৌলা রোড, আন্দরকিল্লা, চেরাগি পাহাড়, প্রেসক্লাব, কাজীর দেউড়ি, আলমাস মোড়, ওয়াসা, জিইসি, মুরাদপুর হয়ে জামেয়া মাদরাসা ময়দানে মাহফিলে মিলিত হয়। তার আগে নগরীর কাজীর দেউড়ীতে তৈরিকৃত মঞ্চে বক্তব্য রাখেন আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ কাসেম শাহ, আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ হামিদ শাহ এবং পিএইচপি ফ্যামিলির চেয়ারম্যান সূফি মিজানুর রহমান।
জামেয়া ময়দানে জুলুসটি ফিরে আসার পর যোহর নামাজ শেষে মাহফিলে আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ তাহের শাহসহ মেহমানদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ কাসেম শাহ এবং প্রধান বক্তা ছিলেন আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ হামিদ শাহ। বক্তব্য রাখেন আনজুমান ট্রাস্টের ‘সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মহসিন, সেক্রেটারি জেনারেল মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, জেমস ফিনলের এম ডি আহমেদ কামরুল ইসলাম, সিডিএর সাবেক চেয়ারম্যান আবদুস সালাম, আনজুমান ট্রাস্টের এডিশনাল সেক্রেটারি ও জুলুস সাব-কমিটির আহবায়ক মোহাম্মদ সামশুদ্দিন, জয়েন্ট জেনারেল সেক্রেটারি মোহাম্মদ সিরাজুল হক, অ্যাসিসটেন্ট জেনারেল সেক্রেটারি এস এম গিয়াস উদ্দিন শাকের, ফাইন্যান্স সেক্রেটারি মুহাম্মদ সিরাজুল হক, প্রেস অ্যান্ড পাবলিকেশন সেক্রেটারি প্রফেসর কাজী শামসুর রহমান, গাউসিয়া কমিটির চেয়ারম্যান পেয়ার মোহাম্মদ এবং জামেয়ার চেয়ারম্যান অধ্যাপক দিদারুল ইসলাম। শেষে মাহফিলের সভাপতি আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ তাহের শাহ লাখো সুুুন্নি জনতাকে নিয়ে আখেরি মোনাজাতে জুলুসে উপস্থিত আশেকানবৃন্দসহ বাংলাদেশের উন্নতি, সমৃদ্ধি ও শান্তি কামনায় দোয়া করেন।
ছিপাতলী মাদরাসায় জশনে জুলুস
ঐতিহ্যবাহী ছিপাতলী জামেয়া গাউছিয়া মূঈনীয়া কামিল (এম.এ) মাদরাসা ও আনজুমানে কাদেরীয়া চিশতীয়া আজিজিয়ার ব্যবস্থাপনায় আল্লামা মুহাম্মদ আজিজুল হক আল-কাদেরী (রহ.) প্রতিষ্ঠিত ১২ দিনব্যাপী ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী (সা.) মাহফিল মাদরাসার অধ্যক্ষ আল্লামা আবুল ফরাহ মুহাম্মদ ফরিদ উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন উপাধ্যক্ষ আল্লামা মুহাম্মদ আবদুল অদুদ আল-কাদেরী, আল্লামা মুহাম্মদ শফিউল আলম নেজামী, আল্লামা একেএম ইউসুপ, মাওলানা মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন, মাওলানা মুফতী আবদুল মোস্তফা রেজভী। তার আগে মাদরাসা থেকে বের হয় এক বিরাট জশনে জুলুসে ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী (সা.) (র‌্যালি)।



 

Show all comments
  • জাহিদ হোসেন ১২ নভেম্বর, ২০১৯, ৯:০৫ পিএম says : 0
    মারহাবা
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ