Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার , ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৬ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

ইসরায়েলি হামলায় ছেলেসহ ইসলামিক জিহাদের কমান্ডার নিহত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ নভেম্বর, ২০১৯, ২:৩৮ পিএম

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় বিরল এক হামলা চালিয়ে ইসলামিক জিহাদের এক শীর্ষ কমান্ডারকে হত্যা করেছে ইসরায়েল। সীমান্ত পেরিয়ে ইসরায়েলি ভূখন্ডের ভেতরে সিরিজ হামলা ও হামলা পরিকল্পনার অভিযোগ ছিল গাজার এই কামান্ডারের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি সামরিক অভিযানে তিনি নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স।
এদিকে, সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কেও ইসলামিক জিহাদের কর্মকর্তাদের বাড়ি লক্ষ্য করে ইসরায়েল ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে। সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম বলছে, ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ইসলামিক জিহাদের ওই কমান্ডারের ছেলে নিহত হয়েছেন।
ইসলামিক জিহাদের কমান্ডার বাহা আবু আল-আত্তার এই হত্যাকান্ডকে গাজা উপত্যকার ক্ষমতাসীন দল হামাসের জন্য কঠিন চ্যালেঞ্জ তৈরি করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ২০১৪ সালের যুদ্ধের পর থেকে ইসরায়েলের সঙ্গে চুক্তি মেনে চলার চেষ্টা করছে হামাস।
গাজার এই ইসলামিক গোষ্ঠী বলছে, মঙ্গলকার ভোরের দিকে গাজা উপত্যকার শেজাইয়া জেলায় কমান্ডার বাহা আবু আল-আত্তার বাড়িতে বোমা হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী। তাদের ছোড়া বোমা ভবনের ছাঁদ ফুটো করে ভেতরে ঢোকার পর বিস্ফোরণ ঘটে। এতে কমান্ডার আল-আত্তা মারা যান। এছাড়া আরও দু'জন আহত হয়েছেন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, এ ঘটনার পরপরই ইসলামিক জিহাদ ইসরায়েলের ভূখন্ডে রকেট হামলা চালিয়েছে। বন্দর নগরী আশদদ থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে সাইরেনের শব্দ শোনা গেছে। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী আয়রন ডোম ব্যবহার করে মাঝ আকাশে রকেট আটকে দিয়েছে।
তবে এই রকেট হামলায় কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। পূর্ব সতর্কতা হিসেবে পুলিশ গাজা উপত্যকার আশপাশের সড়ক বন্ধ করে দিয়েছে।
ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আল-আত্তার বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর অনুমতি দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। ইসরায়েলে সম্প্রতি রকেট, ড্রোন এবং স্নাইপার হামলা ও অনুপ্রেবেশ চেষ্টার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
সূত্র : রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইসরায়েল

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ