Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার , ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৬ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

ফ্রান্সে ইসলামবিদ্বেষের বিরুদ্ধে সমাবেশ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ নভেম্বর, ২০১৯, ৪:১৪ পিএম

কয়েকটি বামপন্থি সংগঠন ও গণমাধ্যমের উদ্যোগে ‘মুসলিম বিদ্বেষ’ এর বিরুদ্ধে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে গত রোববার এক জনসমাবেশের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে প্রায় সাড়ে ১৩ হাজার মানুষ অংশ নিয়েছিলেন৷ কিছুদিন আগেই ফ্রান্সের একটি মসজিদে চালানো সন্ত্রাসী হামলার প্রেক্ষিতেই এই সমাবেশের আয়োজন করা হয়। এই হামলায় জড়িত ছিল ৮৪ বছর বয়সি সাবেক এক ডানপন্থি অ্যাক্টিভিস্ট৷ এতে দুজন আহত হয়েছিলেন৷

পিউ রিসার্চের ২০১৭ সালের এক প্রতিবেদন বলছে, ফ্রান্সের মোট জনসংখ্যার প্রায় ৮.৮ শতাংশ মুসলমান৷ সংখ্যার হিসেবে তা প্রায় ৫৭ লাখ ২০ হাজার জন৷ ‘ইফপ’ নামের এক সংস্থার জরিপ বলছে, ফ্রান্সের ৪০ শতাংশের বেশি মুসলমান ধর্মীয় বৈষম্যের শিকার হয়েছেন৷

একটি গাড়ি কোম্পানিতে প্রকৌশলী হিসেবে কাজ করা ২৯ বছর বয়সি নারী আসমা ইউমোসিদ নেকাব পরে সমাবেশে অংশ নিয়েছিলেন৷ তিনি বলেন, ‘ইসলাম ও পর্দা করা নারীদের সম্পর্কে ইদানীং অনেক বাজে কথা শোনা যায়৷’ নাদজেত ফেলা নামের এক নার্স বলছেন, তিনি আলজেরিয়ায় নেকাব পরার চাপের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে অংশ নিয়েছেন৷ রোববারের সমাবেশেও তিনি ছিলেন৷ ফেলা বলেন, ‘আমি নেকাব না পরার সিদ্ধান্ত নিয়েছি, কিন্তু যারা এটা পরেন তাদের আলাদা করে দেখার বিষয়টি আমাকে আহত করে৷’ প্যারিসের পাশাপাশি মার্সেই শহরেও বিক্ষোভের আয়োজন করা হয়েছিল৷ সেখানেও হাজারের মতো মানুষ অংশ নেন৷

তবে দেশটির সরকার ও ডানপন্থি দলগুলো রোববারের সমাবেশের সমালোচনা করেছে৷ আয়োজকদের প্রতি মৌলবাদী ইসলাম কিংবা সালাফিস্ট গোষ্ঠীর সমর্থন রয়েছে বলে মনে করেন অনেকে৷ যেমন ‘কালেক্টিভ অ্যাগেনস্ট ইসলামোফোবিয়া ইন ফ্রান্স’ নামের সংগঠনটির সঙ্গে পশ্চিমা বিশ্বে জঙ্গি সংগঠন হিসেবে পরিচিত মুসলিম ব্রাদারহুডের সম্পর্ক রয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে৷ লিঙ্গসমতা ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মারলেন শিয়াপা বলেছেন, এই সমাবেশ ‘বৈষম্যের বিরুদ্ধে লড়ার বেশে’ আসলে ধর্মনিরপেক্ষতার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ৷ ফ্রান্সে ধর্মনিরপেক্ষতা বলতে যে-কোনো ধর্মকে সমালোচনা করার অধিকারকেও বোঝায়৷ মারলেন শিয়াপা ছাড়াও ইকোলজি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী এলিজাবেথ বোর্ন সমাবেশের সমালোচনা করে বলেছেন, এটি একজন মানুষকে আরেকজনের বিরুদ্ধে দাঁড় করাবে৷ প্রতিমন্ত্রীর এই মন্তব্যের পালটা যুক্তি হিসেবে সমাবেশে অংশ নেয়া কয়েকজন ‘ধর্মের সমালোচনার প্রতি হ্যাঁ, তবে এর বিশ্বাসীদের বিরুদ্ধে ঘৃণার বিরুদ্ধে না’ শীর্ষক প্ল্যাকার্ড নিয়ে এসেছিলেন৷ সূত্র: এএফপি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফ্রান্স


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ