Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ২৩ জানুয়ারী ২০২০, ০৯ মাঘ ১৪২৬, ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মর্মান্তিক ট্রেন দুর্ঘটনা : নেটিজেনদের প্রতিক্রিয়া

শাহেদ নুর | প্রকাশের সময় : ১২ নভেম্বর, ২০১৯, ৫:৩০ পিএম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী ‘তুর্ণা নিশীথা’র সঙ্গে সিলেট থেকে চট্টগ্রাম অভিমুখে যাত্রা করা ‘উদয়ন এক্সপ্রেস’ ট্রেনের সংঘর্ষ হয়েছে। সোমবার দিবাগত রাত ২ টা ৪৮ মিনিটে উপজেলার মন্দবাগে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ জনে। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রীসহ অনেকেই এই ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন। এই মর্মান্তিক ট্রেন দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও নেটিজেনরা নানা প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

এইচ এম বেল্লাল হোসেন তার ফেইসবুকে লিখেন, ‘আমার মনে হয় বাংলাদেশে এটাই সবচাইতে বড় ট্রেন দূর্ঘটনা। অতি দুঃখের সাথে বলতে হয়, বেশ খারাপ লাগছে নিহতদের ভয়ঙ্কর দৃশ্য দেখে। হে আল্লাহ, তুমি নিহতের পরিবারের এই শোক সহ্য করার শক্তি দাও(আমিন)।’

‘বাংলাদেশর রেল বলে কথা! এর থেকে আর কি আশা করা যায়! জীবনের নিরাপত্তা কোথাও নেই এই দেশে। আমাদের জীবন বিদেশী কুকুরের থেকেও মূল্যহীন।’ - শুভ্র দাসের মন্তব্য।

সঙ্গীত শিল্পী খাইরুল ওয়াসীর প্রশ্ন, ‘মধ্যরাতে কি ট্রেনের চালক সাহেবদ্বয় নাক ডেকে ঘুমাচ্ছিলেন? নাকি মোবাইলে কথায় ব্যাস্ত ছিলেন?’

‘ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার মন্দবাগে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত সকলের আত্মার শান্তি কামনা করছি। সেই সঙ্গে শোকাহত পরিবারের প্রতি রইলো সমবেদনা। আহতরা দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুক। এমন দূর্ঘটনা আর দেখতে চাই না। চলাচলের সকল পথ নিরাপদ হোক।’ - লিখেছেন বাপ্পী চৌধুরী।

এসবি শৈশবের দাবি, ‘ট্রেন দূর্ঘটনায় নিহত-আহত সকলের পরিবারকে ১ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়া হোক, সাথে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের ১জনকে সরকারি চাকুরী দেয়া হোক ঘুষ ছাড়া। যাদের অবহেলায় এতবড় দূর্ঘটনা তাদের বিচারের মুখোমুখি করে উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করার জোর দাবি জানাচ্ছি।’

‘কর্তৃপক্ষের ভুলের কারণে ট্রেন যাত্রাও এখন নিরাপদ নয়। আগে জানতাম ট্রেনের জার্নি করা সবচেয়ে নিরাপদ এখন একদমই নয়!’ - হতাশা প্রকাশ করে লিখেন ইভা রহমান।

এদিকে এই ঘটনায় রেলপথ মন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। আজ মঙ্গলবার সকালে দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে তিনি ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতের পরিবারকে ১ লাখ ও আহতদের ১০ হাজার টাকা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। নিউজটি শেয়ার করে আতিক ফরায়েজী লিখেন, ‘এর বাইরেও যারা আহত হয়েছে তাদেরকে চিকিৎসা বাবদ সমস্ত ব্যয় সরকার বহন করতে হবে। আর নিহতদের পরিবারকে সার্বিক সহযোগিতা করতে হবে।’

ক্ষোভ প্রকাশ করে তুহিন পারভেজ লিখেন, ‘তোমাদের দোষে ট্রেন দুর্ঘটনা, আমি মৃত। আমার জীবনের মূল্য ১ লক্ষ টাকা দিয়ে কি তুমি ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করছো? আগে অপরাধীদের বিচার করুন এবং ভবিষ্যতে যেন এমন ঘটনা না ঘটে সেই ব্যবস্থা করুন।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সোশাল মিডিয়া


আরও
আরও পড়ুন