Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

পটিয়ায় যুবককে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা

পটিয়া (চট্টগ্রাম) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৩ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

পটিয়ায় পূর্ব শক্রুতার জের ধরে কামাল উদ্দিন (৩০) নামের ১ যুবককে পিটিয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার কামাল উদ্দিনের বড় ভাই বেলাল উদ্দিন বাদি হয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে ১টি মামলা দায়ের করেছে। কামাল উদ্দিন উপজেলার ছনহরা ইউনিয়নের মঠপাড়া গ্রামের নবির আহমদের ছেলে। মহিষ নিয়ে সালিশী বৈঠকে বসার জন্য স্থানীয় মেম্বারের নির্দেশে কামাল উদ্দিন গত ৮ নভেম্বর সন্ধ্যায় একই ইউনিয়নের ধাউরডেঙ্গা গ্রামের আবদুল মুন্সিকে ডাকতে গেলে আবদুল মুন্সিসহ তার বড় ভাই লোকমান ও তাদের বাড়ির ৬ জন লোক কামাল উদ্দিনকে বেঁধে বেধরক মারতে থাকে। তাকে শরীরের বিভিন্ন স্থানে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। তাকে দীর্ঘক্ষণ পেঠানোর পর তার মৃত্যুর আশঙ্কায় হামলাকারীরা কামালকে মূমূর্ষ অবস্থায় রেখে পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন কামালের আর্তনাদ শুনে এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে। পরে কামাল উদ্দিনের পরিবারের লোকজনসহ তাকে প্রথমে পটিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি ঘটলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ ব্যাপারে একটি মামলা করা হয়েছে।
মামলার বাদি বেলাল উদ্দীন জানান, স্থানীয় লোকজন খবর না পেলে আমার ভাইয়ের অবস্থা আবরারের ঘটনার মতো হতো। আমার ভাইকে চিকিৎসায় নেওয়ার পর হামলাকারীরা আমাদের লক্ষাধিক টাকার একটি মহিষকে রাতের অন্ধকারে পিটিয়ে মেরে ফেলে।
পটিয়া থানার ওসি বোরহান উদ্দিন জানান, এ ঘটনার ব্যাপারে ৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন