Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

টঙ্গীতে রেলওয়ের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

টঙ্গী সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৪ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

টঙ্গীর রেল স্টেশন এলাকায় অবৈধভাবে গড়ে ওঠা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, খাবার হোটেল, আবাসিক হোটেল, কাঁচা বাজার, বসতঘরসহ বিভিন্ন স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। গতকাল সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
ঢাকা মহানগর রেলওয়ের সহকারী ভ‚মি এস্টেট কর্মকর্তা মো. অহিদুন্নবীর নেতৃত্বে টঙ্গীর রেলওয়ে স্টেশন এলাকার সকল অবৈধ স্থাপনা ভেঙে গুড়িয়ে দেয়া হয়। অভিযানে সার্বিক সহযোগিতা করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. হারুন অর রশিদ, এডিশনাল চীফ রেলওয়ে মো. সেলিম রউফ, ইকবাল মাহমুদসহ টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ ও রেলওয়ে পুলিশ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সার্বিক সহযোগিতা করেন।
ঢাকা মহানগর রেলওয়ের সহকারী ভ‚মি এস্টেট কর্মকর্তা মো. অহিদুন্নবী জানান, রেলওয়ের ভ‚মি উদ্ধার চলমান প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে গতকাল অভিযান চালানো হয়। এতে প্রায় এক একর সম্পত্তি উদ্ধার করা হয়েছে। অভিযানে প্রায় ৮১টি সেমিপাকা নির্মাণাধীন ভবন ভেঙে দেয়া হয়েছে। অবৈধভাবে সরকারি সম্পত্তি কোন দখলদার ভোগ করতে পারবে না। এ উচ্ছেদ অভিযানকে সাধুবাদ জানিয়ে রেলওয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, এই এরিয়ার মধ্যে রেলওয়ের কিছু পুরাতন কোয়ার্টার রয়েছে। সেই কোয়ার্টারগুলো কিছু অসাধু কর্মকর্তা স্থানীয় নেতাদের ম্যানেজ করে ভাড়া দিচ্ছেন। আমি আশা করেছিলাম আজকের অভিযানে এই বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসবে। কিন্তু না আসায় এ নিয়ে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।
এ বিষয়ে ঢাকা মহানগর রেলওয়ের সহকারী ভ‚মি এস্টেট কর্মকর্তা মো. অহিদুন্নবী বলেন, এই অভিযান চলমান একটি প্রক্রিয়া। পর্যায়ক্রমে সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন