Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার , ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

আলোচনায় কবি গুলতেকিন খানের বিয়ে

শাহেদ নুর | প্রকাশের সময় : ১৪ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:৩৭ পিএম

বিয়ে করলেন প্রয়াত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের সাবেক স্ত্রী কবি গুলতেকিন খান। দীর্ঘদিনের বন্ধু, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কবি আফতাব আহমদের বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ তিনি। সম্প্রতি ঢাকাতে ছোট পরিসরে তাদের বিয়ে হয় বলে পরিবার সুত্রে জানা গেছে। প্রায়ত হুমায়ূন আহমেদের ৭১তম জন্মদিনের পরে দিন বৃহস্পতিবার খবরটি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। এমন খবরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়েছে নানা আলোচনা।

কবি, সাংবাদিক ও গবেষক মেহেদী হাসান পলাশ তার ফেইসবুকে লিখেন, ‘ভালোবাসা কখন, কার জানালায় উঁকি দেয় কেউ বলতে পারে না। আবার ভালোবাসা জীবনে একবারই আসবে তারও কোন ধরা বাধা নিয়ম নেই। তাইতো ৫৬ বছর বয়সী গুলতেকিন খানের জানালায় উঁকি দিলেন আফতাব আহমেদ। তারা এখন স্বামী-স্ত্রী। শুভেচ্ছা, শুভকামনা, অভিনন্দন।’

‘গুলতেকিন এর জন্য রইলো স্পেশাল শুভকামনা ।আমার দুঃখ হুমায়ূন আহমেদ এটা দেখে যেতে পারলেন না।’ - পাপিয়া হাসানের মন্তব্য।

শোয়েব জিবরান লিখেন, ‘গুলতেকিন খানকে আমার ভাললাগার কারণ অন্যতম কারণ তাঁর ব্যক্তিত্ব। হুমায়ূন আহমেদের দারিদ্র্যের দিনগুলোতে তাঁর সাথে হাসিমুখে থেকেছেন। আবার সুখের সময় বিচ্ছেদের দিনেও মুখফোটে একটা বাক্যও পাবলিকলি উচ্চারণ করেননি। তিনি প্রিন্সিপাল ইব্রাহিম খাঁ-এর নাতনী। অমন ব্যক্তিত্ব তাঁকেই মানায়। সকালে ঘুম থেকে উঠেই জানলাম, তিনি সরকারের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা, কবি আফতাব আহমেদকে বিয়ে করেছেন। এ বিয়েতে তাঁর সন্তানদেরও সমর্থন ছিল। প্রকাশিত সংবাদের লিংকে সবাইকে অভিনন্দনও জানাতে দেখলাম। এটি সমাজ মানসিকতার যৌক্তিক, ইতিবাচক পরিবর্তনের লক্ষণ। অভিনন্দন ও শুভকামনা, গুলতেকিন খান।’

অভিনন্দন জানিয়ে শিশু সাহিত্যিক হুমায়ন কবির ঢালী কবি গুলতেকিন খানের কবিতার কয়েকটি লাইন শেয়ার করেন, ‘ভুল করেছি বেশ করেছি / তোমার তাতে কী যায় আসে; চরাও তুমি নিজের গরু / নিজের বোনা দুর্বাঘাসে।’

ওবায়েদুর রহমান রাব্বির প্রশ্ন, ‘যার যার জীবন তার তার তারপর ও খুব কি দরকার ছিল, তীরে এসে তরী ডোবানোর?’

‘আমরা বাংগালিরা সবকিছুতেই এতো জাজমেন্টাল কেন! হুমায়ুন আহমেদ আমার সবচাইতে প্রিয় লেখক; তবে ব্যক্তি হিসাবে গুলতেকিন আহমেদকে আমার বেশি ভাল লাগতো; লাগে। তার ব্যক্তিগত জীবনে উনি/ উনার পরিবার যা ভাল মনে করেছেন তাই করেছেন। এটা নিয়ে সবার এতো মাতামাতি কেন বুজতে পারছি না। হুজুগে দল!’ - নাজমুন নাজের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া।

তানিম কবির লিখেন, ‘বিবাহবিচ্ছেদের দুই বছর পর ২০০৫ সালে হুমায়ূন আহমেদ পুনরায় বিয়ে করলেও গুলতেকিন এতদিন তা করেননি। তবে শেষ পর্যন্ত করলেন তাও আবার ঠিক ৫৬ বছর বয়সে। উল্লেখ্য, শাওনকে দ্বিতীয় বিয়ে করার সময় হুমায়ূন আহমেদের বয়সও ছিল ৫৬।’

উল্লেখ্য, আফতাব আহমদ আগে বিয়ে করেছিলেন। সেই স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়েছে প্রায় ১০ বছর আগে।



 

Show all comments
  • Noor Mohammad ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ৩:৫০ পিএম says : 0
    এখেনে সমালোচনার কিছুই নেই। কাজটা খুবই ভালো করেছেন। এই কাজ টি আরো অনেক আগেই করা এবং করতে উৎসাহিত করা প্রয়োজন ছিল। উনাদের নিকটাত্মীয়, ভক্ত ও হিতাকাঙ্ক্ষীদের। ইসলামেও এই বলে। আর এমনিতেও একটুখানি চিন্তা করলেই বুঝতে পারবেন। সঙ্গী বিহীন একাকীত্ব জীবন কতটা অসহায়ের। শেষ বয়সটায় আরও বেশি অনুভূত হয়। কিন্তু মুখ ফুটে কিছু বলতে পারে না আমাদের এই বাঁকা চোখা সমাজের ভয়।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সোশাল মিডিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ