Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

শাহজালালে সাড়ে ৪ কোটি টাকার স্বর্ণ জব্দ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০২ এএম

 ঢাকার হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ৮ কেজি ৮১৬ গ্রাম ওজনের সোনার বার উদ্ধার করা হয়েছে। গত বুধবার বিকেলে প্রায় ৫ ঘণ্টার অভিযান শেষে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন ও ঢাকা কাস্টমস হাউস এসব সোনা উদ্ধার করে। বিমানবন্দরের উত্তরের দিকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের হ্যাঙ্গারে থাকা একটি উড়োজাহাজের সিটের নিচ থেকে এসব সোনার বার পাওয়া যায়। জব্দকৃত ৮ কেজি ৮১৬ গ্রাম ওজনের ৭৬টি সোনার বারের আনুমানিক মূল্য প্রায় সাড়ে ৪ কোটি টাকা।
বিমানবন্দর সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উত্তরের দিকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের হ্যাঙ্গারে থাকা বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর উড়োজাহাজ ‘আকাশ প্রদীপ’ থেকে ৮ কেজি ৮১৬ গ্রাম সোনা উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার বিকেলে প্রায় ৫ ঘণ্টার অভিযান শেষে এসব সোনা উদ্ধার করে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন ও ঢাকা কাস্টমস হাউস। সূত্র জানায়, আবুধাবি থেকে দেশে আসার পর বিমানটি হ্যাঙ্গারে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর গোপন তথ্যের ভিত্তিতে ঢাকা কাস্টমস হাউস ও আর্মড পুলিশ যৌথভাবে অভিযান পরিচালনা করে এসব সোনার বার উদ্ধার করে।
এপিবিএনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন বলেন, গোপন সূত্রে সংবাদ পাওয়া যায় যেÑ বিমানের সিটের নিচে সোনা রয়েছে। পরে বিমানে ঢুকে তল্লাশি চালিয়ে সিটের নিচে পাইপের ভেতর বিশেষ কায়দায় লুকানো অবস্থায় সোনার বারগুলো পাওয়া যায়।
ঢাকা কাস্টমস হাউসের সহকারী কমিশনার সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ফ্লাইটটি আবুধাবি থেকে ঢাকায় আসে (বিজি ০২২৮)। সিটের নিচের পাইপের ভেতর থেকে ৭৬টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়। জব্দ করা সোনার মূল্য প্রায় সাড়ে ৪ কোটি টাকা। আটক সোনার বিষয়ে কাস্টমস আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।
প্রসঙ্গত, বিমানের নিজস্ব উড়োজাহাজগুলোর মধ্যে বহরে যোগ হওয়া তৃতীয় উড়োজাহাজ ‘আকাশ প্রদীপ’। এটি বহরে যোগ হয় ২০১৪ সালের ৫ ফেব্রুয়ারিতে। এই উড়োজাহাজের রেজিস্ট্রেশন নম্বর এস২-এএইচএম। ম্যানুফ্যাকচারার সিরিয়াল নাম্বর (এমএসএন) ৪০১২০।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন