Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১০ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও বিমান পরিবহনখাত রাশিয়ার সহযোগিতার আশ্বাস

বাংলাদেশ-রাশিয়া আন্তঃসরকার কমিশনের দ্বিতীয় বৈঠক

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০২ এএম


বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও বিমান পরিবহনখাতে সহযোগীতা করবে রাশিয়া। একই সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য, অর্থনীতি, বিজ্ঞান ও কারিগরি খাতের উন্নয়নে পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছে। এ জন্য প্রয়োজনীয় ঋণ ও প্রযুক্তিগত সব ধরনের সহযোগিতা করবে দেশটি। উভয় পক্ষের মধ্যে আলোচনার ভিত্তিতে এ বিষয়ে একটি চুক্তি (প্রোটোকল) সই হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে এই চুক্তি সই হয়।
বাংলাদেশ রাশিয়া ইন্টার গর্ভমেন্টাল কমিশন অন ট্রেড ইকোনমিক, সাইন্টিফিক এন্ড টেকনিক্যাল কো-অপারেশন বৈঠক শেষে সংবাদ ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সচিব মনোয়ার আহমেদ। এটি বাংলাদেশ-রাশিয়া আন্তঃসরকার কমিশনের দ্বিতীয় বৈঠক। এ বৈঠকে দুই দেশের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন বাংলাদেশের পক্ষে ইআরডি সচিব মনোয়ার আহমেদ এবং রাশিয়ার কৃষি উপমন্ত্রী ইলিয়া ভি. সেচটাকো।
বৈঠকে উভয়পক্ষের মধ্যে নির্দিষ্ট কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এরমধ্যে রয়েছে- বাণিজ্য, অর্থনৈতিক সহযোগিতা, বিদ্যুৎ, জ্বালানি, পারমাণবিক বিদ্যুৎ, বিমানখাত, মৎস ও প্রাণিসম্পদ, ব্যাংকিং লেনদেন সহজীকরণ, ভূ-তাত্বিক গবেষণা, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, শিক্ষা ও সাংস্কৃতি ও কারিগরি খাত। এসব খাতকে এগিয়ে নিতে বাণিজ্য, অর্থনৈতিক, বিজ্ঞান ও কারিগরি সহযোগিতা বিষয়ক প্রতিশ্রুতি দেয় রাশিয়া। বৈঠক শেষে ইআরডি সচিব মনোয়ার আহমেদ বলেন, রাশিয়া স্বাধীনতার সময় থেকেই বাংলাদেশকে বিভিন্নখাতে সহযোগিতা দিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় আজকের এই প্রোটোকল চুক্তি। আগামী বছর মস্কোতে পরবর্তী সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় ব্যাংকিং খাতে লেনদেন সহজীকরণের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। রাশিয়ার সহযোগিতা বাস্তবায়নাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাজ দ্রুত এগিয়ে নেওয়ার বিষয়ে সভায় আলোচনা হয়েছে।
অর্থনৈতিক অঞ্চলে রাশিয়ার সরকারি-বেসরকারি বিনিয়োগ করতে অনুরোধ করা হয়েছে। এজন্য কর ছাড়, মালিকানাসহ বিভিন্ন সুবিধার কথা তুলে ধরা হয়েছে। বিদ্যুৎ উৎপাদন, সিদ্ধিরগঞ্জ ও ঘোড়াশালে বিদ্যমান দু’টি বিদ্যুৎ কেন্দ্র উন্নয়নে রাশিয়া মত দিয়েছে। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মনোয়ার আহমেদ জানান, রাশিয়ার নবটেক কোম্পানি স্বল্প সুদে এলএনজি আমদানির সুযোগ দেওয়ার ক্ষেত্রে আগ্রহ দেখিয়েছে। মনোয়ার আহমেদ বলেন, দুই দেশের কমিশনের এটি দ্বিতীয় বৈঠক। আগামী বছর রাশিয়ার মস্কোতে তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। তিনি বলেন, সহজ ব্যাংকিং লেনদেন খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এ বিষয়ে পরবর্তীতে বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে রাশিয়ান সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের আলোচনার মাধ্যমে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। রাশিয়ার কৃষি উপমন্ত্রী ইলিয়া ভি. সেচটাকো বলেন, রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজ ভালভাবে এগিয়ে চলছে। এই প্রকল্প বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের ব্যাপক সম্ভাবনা দেখাচ্ছে। রাশিয়ান ফেডারেশন বিশ্বব্যাপী পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশের দক্ষ জনশক্তি তৈরিসহ তথ্য প্রযুক্তিখাতে উন্নয়নে কাজ করা হবে।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ