Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

রাজশাহীতে যুবলীগ কর্মী হত্যা সৈনিক লীগের সাতজন গ্রেফতার

রাজশাহী ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

রাজশাহীতে পশ্চিমাঞ্চল রেলের টেন্ডার নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে যুবলীগ কর্মী সানোয়ার হোসেন রাসেল (৩০) নিহতের ঘটনায় পুলিশ গত বুধবার রাতে শিরইল কলোনী এলাকায় অভিযান চালিয়ে সাতজনকে গ্রেফতার করেছে। নগরীর চন্দ্রিমা থানায় ১৭ জনের নাম উল্লেখ করে ২৫ জনকে আসামি করে নিহত রাসেল ভাই মনোয়ার হোসেন রনি বাদি হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হলো, নগরে শিরোইল কলোনী এলাকার বুলবুল হোসেনের ছেলে আসামী রাব্বি (২৫), জয়নালের ছেলে বাপ্পি (১৯), নূর মোহাম্মদ সরদারের ছেলে শাহিন (২৪), মানিকের ছেলে শুভ (২১), বাবু ইসলামের ছেলে চঞ্চল (১৯), জালাল উদ্দিনের ছেলে কলাম উদ্দিন (১৯), আবুল কালাম চৌধুরীর ছেলে মোজাহিদুল ইসলাম অভ্র (১৯)। ওসি গোলাম মোস্তফা বলেন, আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তারা সবাই সৈনিক লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত।

ওসি জানান, রেল ভবনের টেন্ডার নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নগরের বোয়ালিয়া থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নিহত রাসেলের ভাই আনোয়ার হোসেন রাজার সঙ্গে মহানগর সৈনিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সুজন আলীর মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। দুপুরে রেল ভবনের সামনে তাদের কথা কাটাকাটি হয়। এরই একপর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধা। এ সময় রাসেলসহ পাঁচজন আহত হন। পরে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সন্ধ্যা ৬টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাসেল মারা যান। নিহত রাসেল রাজশাহী মহানগর যুবলীগের সদস্য। নগরীর বাস্তুহারা এলাকায় তার বাড়ি। রাসেলের বাবার নাম মৃত আবুল কাশেম। সংঘর্ষের সময় রাসেলের পেটে ছুরিকাঘাত করা হয়েছিল।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন