Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

৫০ বছরের মধ্যে ভয়াবহ বন্যায় ভাসছে ভেনিস, জরুরি অবস্থা জারি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ১:০৩ পিএম

প্রাকৃতিক জোয়ারের পানিতে ইতালির ভেনিসের প্রায় ৮৫ ভাগ এলাকা ডুবে গেছে। জোয়ার পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র জানিয়েছে, উচ্চ জলরাশি ১ দশমিক ৮৭ মিটারে পৌঁছে গেছে, যা ৫০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ জলরাশির কবলে পড়েছে স্বপ্নের এই নগরী।
ইতালির প্রধানমন্ত্রী গুইসেপ কন্তে ভেনিস নগরীতে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন। প্রায় পুরো নগরী পানিতে তলিয়ে যাওয়ার পর তিনি এ ঘোষণা দিলেন। বন্যায় ওই নগরীতে এখন পর্যন্ত দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। জরুরি অবস্থা ঘোষণার আগে দেশটির সংসদে তা অনুমোদন করা হয়। ভেনিস হচ্ছে বিশ্বের পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষণস্থল। ভেনিস নগরীতে গত ৫০ বছরে এতো বেশি পানি উঠেনি।
জোয়ারে ভেনিসের ঐতিহাসিক ব্যাসিলিকা, শহরের প্রাণকেন্দ্রসহ গুরুত্বপূর্ণ অনেক এলাকা এবং সরু গলিপথ পানিতে তলিয়ে গেছে। নগরীর ৮০ শতাংশই পানিতে তলিয়ে গেছে। ১৯৬৬ সালের পর এবার পানির উচ্চতাও সর্বোচ্চে পৌঁছেছে। জোয়ার পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের হিসাবমতে, ভেনিসে এবার পানি সর্বোচ্চ ১ দশমিক ৮৭ মিটার (৬ ফুট) উচ্চতায় উঠেছে। এর আগে ১৯২৩ সাল থেকে রেকর্ড শুরু হওয়ার পর ১৯৬৬ সালে ভেনিসে জোয়ারের পানির উচ্চতা হয়েছিল ১ দশমিক ৯৪ মিটার।
ভেনিসের মেয়র লুইজি ব্রæগনারো জোয়ারের পানির উচ্চতা এতো বেশি বেড়ে যাওয়ার জন্য জলবায়ু পরিবর্তনকে দায়ী করেছেন। এ বন্যা ভেনিসের বুকে ‘স্থায়ী চিহ্ন’ রেখে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।
পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষণ ভেনিস নগরীতে জোয়ারের পানি বেড়ে ছয় ফুটেরও বেশি উচ্চতায় ওঠার পর জরুরি অবস্থা জারি করলো সরকার।
প্রধানমন্ত্রী জানান, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ সরবরাহে দ্রæত কাজ করা হবে।  ৫০ বছরের মধ্যে রেকর্ড পরিমাণ জোয়ারের পানিতে ঐতিহাসিক রাজপ্রাসাদসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে এলাকার মানুষ। এরই মধ্যে নগরীর ৮০ শতাংশের বেশি পানিতে তলিয়ে গেছে। এ পর্যন্ত বন্যায় দুজনের মৃত্যু হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ