Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার , ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০১ পৌষ ১৪২৬, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

আজ নবান্ন : আদমদীঘির ঘরে ঘরে উৎসব

আদমদীঘি (বগুড়া) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৬ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম

আজ নবান্ন, এই দিনকে ঘিরে পশ্চিম বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলা সদরসহ প্রত্যন্ত গ্রামগুলোতে দেখা দিয়েছে উৎসবের আমেজ। বাংলা সালের অগ্রহায়ণ মাসের ১ম দিন হয় নবান্ন উৎসব। দিনটি পালন করার জন্য কৃষকদের ঘরে ঘরে আনন্দের যেন কোন কমতি নেই। জাতি ধর্ম নির্বিশেষে সকলেই পরিবারের মানুষ নিয়ে এই নবান্ন উৎসব করে। যুগযুগ ধরে চলে আসা আনন্দের এ দিনটি পালনে এবারও কোন ব্যতিক্রম হবে না। ইতিমধ্যে এলাকার কৃষকরা গত কয়েক দিন আগেই আগাম জাতের নতুন ধান কেটে ঘরে তুলতে শুরু করেছেন। পাড়া মহল্লায় গরু মহিষ খাসি জবাই করে ভাগাভাগি করে নিয়ে নতুন ধানের চাল দিয়ে পিঠাপুলি পায়েশ-পোলাও এবং নতুন চালের আটা, গুড় ও কলা দিয়ে সিরনি তৈরি করে আত্মীয়স্বজন পাড়া প্রতিবেশীদের নিয়ে খাবার ধুম পরে যায় গ্রামে গ্রামে। নবান্ন ছাড়া এই উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকার অনেক কৃষক নতুন চালের ভাত খান না। এর মধ্যে যেসব কৃষকের ধান পাকতে দেরি হয় তারা পরে নবান্ন করেন।

আবার অনেকে স্থানীয় মসজিদে পোলাও পায়েশ দেওয়ার পর নতুন চালের ভাত খান। উপজেলার শালগ্রামের মাহমুদ হোসেন ভোলা জানান, তার বাড়িতে গত তিন দিন আগে থেকে আত্মীয়স্বজন আসতে শুরু করেছে। উপজেলার ছাতিয়ানগ্রাম ইউনিয়নের, শালগ্রাম, কোমারপুর, কালাইকুড়ি, কাল্লাগাড়ী, সাগরপুর, নিমাই দীঘি, বাগবাড়ি, অন্তাহার, দুর্গপুর পোওতা বশিপুরে নবান্ন উৎসব চলে তিন চার দিন ধরে। কায়েত পাড়া গ্রামের কৃষক শফির উদ্দীন বলেন, নবান্ন উপলক্ষে গত শুক্রবার আগাম জাতের ধান কাটা শুরু করেছি এবং আজ নতুন ধানের চাল দিয়ে নবান্ন করে পরিবারের সবাইকে নিয়ে নতুন চালের ভাত খাওয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ