Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৮ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

ঈশ্বরগঞ্জে পেঁয়াজের দাম ২৫০

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ নভেম্বর, ২০১৯, ২:০৭ পিএম

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে শুক্রবার থেকে শনিবার দুই দিন ধরে বাড়তি পেঁয়াজের দাম। উপজেলার বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, সব ধরনের পেঁয়াজ ২৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। ক্রেতারা বলছেন ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে দেশি পেঁয়াজের কেজি ১৪০ টাকায় উঠেছিল। সেটাই ছিল এযাবৎকালের সর্বোচ্চ দর। বর্তমানে সেই রেকর্ট ভেঙ্গে এখন তা ২৫০টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এতে সাধারণ মানুষের মাঝে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

পেঁয়াজের আকাশচুম্বী দামের কারণে নিম্ন ও সীমিত আয়ের মানুষ ব্যাপক চাপে পড়েছে। সকালে ঈশ্বরগঞ্জ পৌর কাঁচাবাজারে ঘুরে দেখা যায়, পেঁয়াজের দাম শুনে মলিন মুখ করে চলে যাচ্ছেন নিম্ন আয়ের মানুষেরা। অনেককে অল্প করে পেঁয়াজ কিনে ফিরে যেতে দেখা যায়। ব্যবসায়ীরা বলছেন, পেঁয়াজের জোগান নেই, প্রতি কেজি পেয়াজ ২৩০টাকা ধরে তাদেরই পাইকারী কিনতে হয়েছে তাও ব্যববসায়ীরা পাচ্ছেন না। তাঁরা জানান, দাম বেশি বলে বাজারে ক্রেতাও কম।

পৌর সদরের কাঁচাবাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা ক্রেতা সুলতান বলেন, পেঁয়াজ কিনতে কাঁচাবাজারে এসেছেন। কয়েক দোকান ঘুরে একটি দোকানে ২৫০ টাকা কেজিতে ১ কেজি পেঁয়াজ কিনেছেন তিনি। দোকানি তাঁকে জানান, অল্প এনে অল্প বিক্রি করছেন। পাইকাররা মূল্যবৃদ্ধির কারণে চালান করতে ভয় পাচ্ছেন। এতে বাজারে পেয়াজের সংকট তৈরি হয়েছে।

আরেক ক্রেতা সুরাইয়া বলেন, পিয়াজ কিনতে এসছিলাম কিন্তু এতো টাকা দামে পেয়াজ নেওয়া আমার পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না। ক্রেতারা অভিযোগ করছেন পেয়াজের দাম প্রতিনিয়ত বাড়তে থাকলেও বাজার নিয়ন্ত্রণে প্রশাসনের কোন নজর নেই।

পেয়াজের লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধির বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মে রুমানা তুয়ার নজরে আনলে তিনি বলেন, বিষয়টি দেখছি কি করা যায়।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পেঁয়াজ

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
১৮ জানুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ