Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৭ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

শ্রীলঙ্কায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ নভেম্বর, ২০১৯, ২:২৬ পিএম

শ্রীলঙ্কায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। স্থানীয় সময় শনিবার সকাল ৭টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। চলবে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। দক্ষিণ এশিয়ার এ দ্বীপ দেশে এটি অষ্টম এবং ২০০৯ সালে কয়েক দশকের গৃহযুদ্ধ শেষ হওয়ার পর এটি তৃতীয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। ভোটার সংখ্যা প্রায় এক কোটি ৬০ লাখ। সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠানে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

এবারের নির্বাচনে মোট ৩৫ জন প্রার্থী অংশ নিয়েছেন। তবে বর্তমান প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা এবার নির্বাচন করছেন না। খবর দ্য হিন্দুর। ফলে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে ক্ষমতাসীন ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টি (ইউএনপি)-এর সাজিথ প্রেমাদাসা এবং বিরোধী দল শ্রীলঙ্কা পিপলস ফ্রন্ট (এসএলপিপি)-এর গোটাবায়া রাজাপক্ষের মধ্যে।
এ বছরের ২১ এপ্রিল শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ সিরিজ বোমা হামলা হয় যাতে নিহত হন আড়াই শতাধিক মানুষ। ওই হামলার ক্ষত এখনও তাড়া করে ফেরে লঙ্কানদের। এর দায় স্বীকার করে আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস। ভয়াবহ ওই হামলার পর উত্তেজিত জনতার হামলা-অগ্নিসংযোগের শিকার হয় সে দেশের মুসলমানরা। সে কারণে এবারের নির্বাচনে নজিরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। দেশব্যাপী ১২ হাজার ৮৪৫ ভোটকেন্দ্রের জন্য ৮৫ হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে আলজাজিরা ও দ্য হিন্দু।

এর আগে নির্বাচনী প্রচারণা শেষ হয়েছে। শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় নানা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রার্থীরা। জোর দিয়েছেন দেশের উন্নয়ন ও শক্তিশালী অর্থনীতি গড়ে তোলার ওপর।
২০১৯ সালের ২১ এপ্রিল শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ সিরিজ বিস্ফোরণে নিহত হন অন্তত ২৫৮ জন। ওই হামলার ক্ষত এখনও তাড়া করে বেড়ায় লঙ্কানদের। ফলে এবারের নির্বাচনকে ঘিরে দেশজুড়ে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে রাজধানী কলম্বোসহ পুরো দেশ।
সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী গোটাবায়া দুই মেয়াদে ক্ষমতায় থাকা মাহিন্দা রাজাপাকসের ভাই। অন্যদিকে ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী সাজিথ প্রেমাদাসা সে দেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী রানাসিংহ প্রেমাদাসার ছেলে। সংখ্যালঘু তামিল ও মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছে তিনি জনপ্রিয়।

বিশ্লেষকদের মতে ভূ-রাজনৈতিক অবস্থানের কারণে শ্রীলঙ্কার নির্বাচন নিয়ে এ অঞ্চলের দুই প্রভাবশালী দেশ ভারত ও চীনের আগ্রহ রয়েছে। ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী সাজিথ প্রেমাদাসাকে পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেখতে চায় নরেন্দ্র মোদির সরকার। অন্যদিকে বেজিংয়ের প্রত্যাশা বিরোধী দলের গোটাবায়া রাজাপাকসের বিজয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শ্রীলঙ্কা


আরও
আরও পড়ুন