Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

অরুণাচল ভারতের প্রদেশ নয়, এটা তিব্বতের অংশ : চীনা মুখপাত্র

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ নভেম্বর, ২০১৯, ৫:৪৪ পিএম

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ অরুণাচল দক্ষিণ তিব্বত বলে দাবি করেছে এশিয়ার পরাশক্তি চীন। এক বিবৃতিতে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গেং শুয়াং বলেছেন, ‘চীন অরুণাচল প্রদেশকে কোনোদিনও ভারতের অংশ হিসেবে স্বীকৃতি দেবে না। এখানে ভারতীয় নেতাদের সমস্ত কার্যকলাপের চূড়ান্ত বিরোধিতা করা হবে। তাই অঞ্চলটিতে শান্তি রক্ষার লক্ষ্যে ভারতের উচিত, কোনো উসকানিমূলক পদক্ষেপ না নেওয়া।’

ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সাম্প্রতিক অরুণাচল সফরের বিরুদ্ধে এবার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে এশিয়ার পরাশক্তি চীন। বেইজিংয়ের দাবি, চীন কখনই অরুণাচল প্রদেশকে ভারতের ভূখণ্ড বলে মানবে না। কেননা তারা অঞ্চলটিকে নিজেদের দক্ষিণ তিব্বত বলেই জানে।

‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’ জানায়, বেসামরিক নাগরিক ও সেনা সদস্যদের বন্ধুত্বপূর্ণ সহাবস্থানকে উৎসাহ দিতে বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) ভারতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী প্রদেশটির তাওয়াং এলাকা সফরে যান। যেখানে তিনি একটি সামরিক অনুষ্ঠানেও অংশগ্রহণ করেন।

চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গেং শুয়াং শুক্রবার রাজনাথের এই সফরের প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, অরুণাচল প্রদেশকে কোনও দিনই ভারতের অংশ হিসেবে স্বীকৃতি দিতে রাজি নয় চীন। এই অঞ্চলে ভারতীয় নেতাদের কার্যকলাপের চূড়ান্ত বিরোধিতা করে যাবে বেইজিং। আঞ্চলিক শান্তি রক্ষার লক্ষ্যে ভারতের কোনও উসকানিমূলক পদেক্ষেপ নেয়া উচিত নয় বলেও ওই মুখপাত্র মন্তব্য করেন।

অরুণাচল প্রদেশের সীমান্ত সমস্যা মেটাতে এখন পর্যন্ত চীন ও ভারত ২১ দফা বৈঠক করেছে। এই অঞ্চলে ভারত ও চীনের মধ্যে তিনি হাজার ৪৮৮ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্ত রয়েছে।

এর আগেও বেশ কয়েকবার ভারত কর্তৃপক্ষের অরুণাচল সফর নিয়ে আপত্তি জানিয়েছিল প্রতিবেশী চীন। সর্বশেষ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রদেশটি সফর নিয়েও বেইজিংয়ের পক্ষ থেকে তীব্র আপত্তি জানানো হয়।

বিতর্কিত অরুণাচল প্রদেশের সীমান্ত সমস্যা নিরসনে চীন এবং ভারত এখন পর্যন্ত মোট ২১ দফা বৈঠক করেছে। কেননা দেশ দুটির মধ্যে প্রায় তিনি হাজার ৪৮৮ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্ত রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ