Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

পিরোজপুরে জেডিসি পরীক্ষায় ৫ ভুয়া পরীক্ষার্থীসহ আটক-৭

পিরোজপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ নভেম্বর, ২০১৯, ৬:১০ পিএম

পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়ায় জেডিসি পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীর পরিবর্তীতে অন্য শিক্ষার্থী দিয়ে (বডি চেঞ্জ) করে ভূয়া পরীক্ষা দেওয়ার অভিযোগে কেন্দ্র সচিব ও এক মাদ্রাসার সুপারসহ ৭জনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার ভান্ডারিয়া উপজেলার ইকড়ি ইউনিয়নের পশ্চিম পশারীবুনিয়ার বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত বিপিএম দাখিল মাদ্রাসা পরীক্ষা কেন্দ্রে জুনিয়র দাখিল পরীক্ষা (জেডিসি) ইংরেজি বিষয়ে পরীক্ষা চলাকালিন সময়ে ভান্ডারিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তৌহিদুল ইসলাম পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে ৫ ভূয়া পরীক্ষার্থীকে সনাক্ত করেন এবং অভিযুক্ত পরীক্ষার্থীরা অন্যের পরীক্ষা দেওয়ার অভিযোগে তাৎক্ষণিক আটক করা হয় বলে জানান ভান্ডারিয়া থানার ওসি (তদন্ত) ফরিদ হোসেন। এ সময় কেন্দ্র সচিব মো. আমির হোসেন ও হরিণপালা নেছারিয়া সিদ্দিকীয়া দাখিল মাদ্রাসা সুপার মো. সিদ্দিকুর রহমানকে দায়িত্বে¡ অবহেলার অভিযোগে তাদেরও আটক করে।

ভান্ডারিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. তৌহিদুল ইসলাম জানান, ভান্ডারিয়া উপজেলার পশ্চিম গোলবুনিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসার নিয়মিত পরীক্ষার্থী মুনিয়া আক্তার রোল ৩০৬৫৪৯ এর পরিবর্তে হাফিজা আক্তার, রুমী আক্তার রোল-৩০৬৫৫০ এর পরিবর্তে কারিমা আক্তার, নূপুর আক্তার রোল- এর পরিবর্তে ফাযিল পরীক্ষার্থী মুনিয়া হাওলাদার, সোনিয়া আক্তার রোল-৩০৬৫৪১ এর পরিবর্তে বকুল আক্তার হরিণপালা নেছারিয়া ছিদ্দিকিয়া দাখিল মাদ্রাসা পরীক্ষার্থী বায়জিদ হোসেন রোল-৩০৬৩৮৬ এর পরিবর্তে মো. মমিনুল ইসলাম পরীক্ষায় অংশ নেয়। এ সময় ভূয়া পরীক্ষার্থীকে সনাক্ত করেন এবং অভিযুক্ত পরীক্ষার্থীরা অন্যের পরীক্ষা দেওয়ার অভিযোগে তাৎক্ষণিক আটক করা হয়।

ভান্ডারিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজমুল আলম জানান,মাদ্রাসা পরীক্ষাকেন্দ্র-২ বিপিএম দাখিল মাদ্রাসার কেন্দ্র সচিব মাওলানা আমীর হোসেন সহ মোট ৭জন আটক করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, সংশ্লিষ্ট পরীক্ষা কেন্দ্রের অনিয়মসহ বিভিন্ন মাদ্রাসা বোর্ডে চিঠি দেয়া হবে বলে জানান।
এ বিষয়ে ভান্ডারিয়া থানার ওসি (তদন্ত) ফরিদ হোসেন বলেন, এ ঘটনায় ভান্ডারিয়া উপজেলা সহকারি প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. এমাদুল হক বাদি হয়ে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এছাড়া আটককৃত ৫ ভূয়া পরীক্ষার্থীর বিরুদ্ধে শিশু আইনে মামলা দায়ের করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আটক

১১ ডিসেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন