Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

দক্ষিণাঞ্চলের টেলিযোগাযোগ ৩০ঘন্টার বেশী সময় বিপর্যস্ত

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৬ নভেম্বর, ২০১৯, ৬:৩৮ পিএম | আপডেট : ৬:৩৮ পিএম, ১৬ নভেম্বর, ২০১৯

টানা ৩০ ঘন্টারও বেশী সময় পরে শনিবার দুপুরে দক্ষিণাঞ্চলের টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা আংশিক পূণর্বহাল হয়েছে। শুক্রবার শেষ রাত থেকে বরিশাল মহানগরী সহ সমগ্র দক্ষিণাঞ্চলের টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা বিপর্যস্ত হয়ে পরে। ফলে বরিশাল মহানগরীর ৩টি সহ দক্ষিণাঞ্চলের ৬টি জেলা ও ৪২টি উপজেলা সদরের প্রায় ৪৩ হাজার ধারণ ক্ষমতার টেলিফোন এক্সচেঞ্জ-এর সাথে সারা দেশের টেলিযোগাযোগ বন্ধ থাকলেও এর সঠিক কারন জানা যায়নি। এর ফলে বিটিসিএল-এর ইন্টারনেট পরিসেবাও বিপর্যস্ত হয়ে পরে।

বিষয়টি নিয়ে খোজ খবর নিতে শনিবার দিনভর বিটিসিএল বরিশাল-এর ডিজিএম ও ম্যানেজারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তা সম্ভব হয়নি। তবে গোলযোগের ২৪ঘন্টারও বেশী সময় পরে শনিবার সকালে বরিশাল টেলিযোগাযোগ অঞ্চলের জিএম’কে বিষয়টি অবহিত করা হলে তিনি সমস্যাটি ট্রান্সমিশন বিভাগের বলে জানিয়ে খোজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান। এব্যাপারে শনিবার দিনভর বিটিসিএল-এর বরিশাল ট্রান্সমিশন বিভাগের ডিজিএম-এর সেল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি ।
বরিশাল সহ দক্ষিণাঞ্চলের টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা এখন সর্বকালের নাজুক পর্যায়ে। গত রবিবার দুপুর থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত বেশীরভাগ সময়ই বরিশাল মহানগরীর ৩টি টেলিফোন এক্সচেঞ্জই বার বার বন্ধ হয়ে যায়। এমনকি ৬দিয়ে শুরু এক্সচেঞ্জটি সচল হয় সোমবার বিকেলেরও পরে। উপজেলা পর্যায়ের বেশীরভাগ টেলিফোন এক্সচেঞ্জই ত্রুটিপূর্ণ ।

প্রতিদিন বরিশাল মহানগরীর বিপুল সংখ্যক টেলিফোন বিকল হলেও তার খোজ খবর কেউ রাখছেনা বলে অভিযোগ রয়েছে। অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের টেলিফোন দিনের পর দিন বিকল থাকলেও অভিযোগ দিয়েও কাজ হচ্ছেনা বলেও অভিযোগ রয়েছে। নানা কারনে নগরীর বিপুল সংখ্যক টেলিফোন বিকল হয়ে আছে। কিন্তু তার মেরামতও হচ্ছে না একাধিক অজুহাতে। এমনকি বরিশাল টেলিযোগাযোগ অঞ্চলের জিএম-এর কাছে অভিযোগ প্রদান করার পরেও নগরীর অনেক গুরুত্বপূর্ণ টেলিফোন সচল না হবার অভিযোগ রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টেলিযোগাযোগ

৮ জানুয়ারি, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন