Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯, ০৭ চৈত্র ১৪২৫, ১৩ রজব ১৪৪০ হিজরী।

কেন্দ্রীয় কারাগার এলাকায় সবুজ বলয় গড়ে তোলার দাবি পরিবেশবাদীদের

প্রকাশের সময় : ২২ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার  : ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার এলাকায় স্থাপনা সংরক্ষণসহ সবুজ বলয় গড়ে তোলার দাবি পরিবেশবাদীদের। তাদের মতে, কেন্দ্রীয় কারাগার কেরানীগঞ্জে স্থানান্তরিত হওয়ার পর পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোড়স্থ এই কারাগারের স্থাপনা সংরক্ষণ ঐতিহাসিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ। একই সঙ্গে কারাগারের ঐতিহ্য সমুন্নত রেখে পরিত্যক্ত জায়গায় শিশুপার্ক, খেলার মাঠ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সবুজ বলয় গড়ে তোলার দাবি জানিয়েছেন ২৫টি পরিবেশবাদী ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। গতকাল (মঙ্গলবার) বেলা ১১টায় কেন্দ্রীয় কারাগার এলাকার সামনে পবার উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা এসব দাবি জানান। পবার সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী আবদুস সোবহানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন নাসফের সভাপতি ও পবার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান ময়না, মার্শাল আর্ট ফাউন্ডেশনের সভাপতি আতিক মোরশেদ, মর্ডান ক্লাবের সভাপতি আবুল হাসনাত, দেবীদাস ঘাট সমাজকল্যাণ সংসদের সভাপতি মুসা, ডাব্লিউবিবি ট্রাস্টের প্রকল্প কর্মকর্তা আতিকুর রহমান, ইয়থ সানের সভাপতি মাকিবুল হাসান বাপ্পী, পুরান ঢাকা নাগরিক উদ্যোগের সভাপতি নাজিম উদ্দিন, বাংলাদেশ অনির্বাণ সমাজকল্যাণ সংস্থার সাধারণ সম্পাদক বাবুল, বাংলাদেশ বাইসাইকেল লেন বাস্তবায়ন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, সুবন্ধন সমাজ কল্যাণ সংগঠনের সভাপতি হাবীব, বাংলাদেশ কবি পরিষদের ইব্রাহীম প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, সর্বসাধারণের ব্যবহার উপযোগী উন্মুক্ত এলাকা জনসাধারণের মধ্যে সংযোগ বৃদ্ধি করে এবং সকল নাগরিকের স্বাস্থ্য, শান্তি, কল্যাণ ও মঙ্গল নিশ্চিত করে। ঢাকা পৃথিবীর জনঘনত্বসম্পন্ন নগরীর একটি। এখানে উন্মুক্ত এলাকা একটি অপরিহার্য ও দুর্লভ সম্পদ।  দ্রুত নগরায়নের সাথে সাথে খোলা জায়গার পরিমাণ ধীরে ধীরে হ্রাস পাচ্ছে। ঢাকার উন্মুক্ত স্থানের প্রধান সমস্যা হচ্ছে সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার বলপূর্বক দখল। তারা আরো বলেন, সরকার নিজেই ঢাকার একাধিক পার্ক ও উন্মুক্ত স্থান গ্রাস করেছে, এছাড়াও অনেকগুলো পার্ক ও উন্মুক্ত স্থানের অংশবিশেষ কমিউনিটি সেন্টার ও কমিশনারের অফিসের জন্য দখল করা হয়েছে। বর্তমানে একটি আদর্শ নগরীর জন্য ২৫% খোলা এলাকা রাখার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। কিন্তু বাস্তবে এ লক্ষ্যে কোন কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়নি। বরং এসব এলাকা সরকারি ও বেসরকারিভাবে দখলের ফলে প্রতিনিয়ত হ্রাস পাচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ