Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার , ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৬ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

সখিপুর কচুয়া-আড়াইপাড়া সড়কে নিম্নমানের ইট ব্যবহার করায় রাস্তার কাজ বন্ধ করল এলাকাবাসী

সখিপুর (টাঙ্গাইল) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৮ নভেম্বর, ২০১৯, ৮:২১ পিএম

টাঙ্গাইলের সখিপুর উপজেলার কচুয়া-আড়াইপাড়া সড়কের নির্মাণকাজ বন্ধ করে দিয়েছেন এলাকাবাসী। নিম্ন মানের ইট ব্যবহার করায় সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কচুয়া গ্রামের লোকজন সড়কের নির্মাণকাজ বন্ধ করে দেয়। এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী আহসান হাবীব নির্মাণ কাজ বন্ধ করার এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছে। উপজেলা এলজিইডি কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কচুয়া-আড়াইপাড়াবাজার পর্যন্ত দুই কিলো ৯শত মিটার সড়কের নির্মাণ কাজটি পায় রহমান কনস্ট্রাকশন নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। কচুয়া বাজার থেকে ৩২০মিটার ইটের সলিং (এইচবিবি) ও বাকি ২হাজার৫শত ৮০ মিটার কার্পেটিং করার জন্য এক কোটি ১১ লাখ টাকার নির্মাণ কাজ গত ৯ নবেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়। ইতিমধ্যে কচুয়া বাজার থেকে ইট সলিংয়ের কাজ চলছে। সোমবার ভোরে নি¤œমানের দুই ট্রাক ইট ওই সড়কের জন্য আনা হয়। সকাল নয়টা থেকে নি¤œমানের ইট দিয়ে কাজ শুরু হওয়ার খবরে কচুয়া বাজার বণিক সমিতি ও গ্রামের লোকজন একত্রিত হয়ে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সড়কের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেন। পরে এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী ঘটনাস্থলে গিয়ে নিম্ন মানের ইট দিয়ে নির্মাণ কাজ করার সত্যতা খুঁজে পান। কচুয়া বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবদুল আলীম বলেন, প্রথমে কিছু ভাল ইট দিয়ে সড়কের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। সোমবার সকালে নিম্ন মানের ইট দিয়ে কাজ শুরু হওয়ার খবর পাওয়ার পর আমরা সবাই একত্রিত হয়ে ঠিকাদারকে কাজটি বন্ধ রাখার জন্য অনুরোধ করি। পরে কাজ বন্ধ করে নির্মাণ শ্রমিকেরা চলে যায়। কচুয়া গ্রামের বাসিন্দা আবদুর রহিম বলেন, এখন আমরা অনেক সচেতন। এ দেশ আমাদের, সড়ক আমাদের। আমাদের শ্রম-ঘামের ও ট্যাক্সের টাকায় সড়ক নির্মাণ হচ্ছে, অতএব নি¤œমানের কাজ করে ঠিকাদার পার হতে পারবে না। ওই সড়কের নির্মাণ কাজ দেখাশুনার দায়িত্বে থাকা এলজিইডির উপ-সহকারী প্রকৌশলী আবদুল জলিল বলেন, আমি ঢাকায় প্রশিক্ষণে রয়েছি। সোমবার নি¤œমানের ইট দিয়ে কাজ শুরু করায় গ্রামবাসী বাধা দিয়েছে। আমি উপস্থিত থাকলে হয়তো এ কাজ হতো না। আমার কাজটি গ্রামবাসী করায় তাঁদেরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।



 

Show all comments
  • ash ১৯ নভেম্বর, ২০১৯, ৫:১৪ এএম says : 0
    AI SHOMOSTHO CHORRR CONTRACTOR DER DORE VALO DHOLAI DEWA WICHITH !
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ