Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

টাঙ্গাইলে শিশু ধর্ষণ মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

টাঙ্গাইলে শিশু ধর্ষণের দায়ে এক জনকে যাবজ্জীবন কারাদ- ও ১ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল। গতকাল দুপুরে ট্রাইব্যুনালের বিচারক বেগম খালেদা ইয়াসমিন আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। দ-িত ব্যক্তি হলো টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলার মীর কুমুল্লী গ্রামের মৃত খন্দকার মতিয়ার রহমানের ছেলে মীর যুবরাজ (৪০)। সে ধর্ষিতার বাড়িতে ভাড়াটিয়া ছিলো।

নারী ও শিশু আদালতের বিশেষ পিপি এ কে এম নাছিমুল আক্তার জানান, টাঙ্গাইল পৌর শহরের থানাপাড়া এলাকার মো. আমির আজম খানের মেয়ে সাজিয়া খানমকে বিভিন্ন সময় ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে ভাড়াটিয়া মীর যুবরাজ। এরই ধারাবাহিকতায় গত বছরের ২৮ সেপ্টেম্বর সকালে সাজিয়া খানম স্কুলে যাওয়ার সময় তাকে অপহরণ করে দেলদুয়ার নিয়ে পুনরায় ধর্ষণ করে। ধর্ষণের পর কারো কাছে বিষয়টি না জানানোর জন্য তাকে হত্যার হুমকি প্রদান করে এবং বাড়ির সামনে রেখে যায়।
পরে ধর্ষিতা তার পরিবারের সবাইকে বিষয়টি জানালে ১৮ নভেম্বর ধর্ষিতার বাবা আমির আজম বাদী হয়ে ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন এবং পরদিন আসামি মীর যুবরাজকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। এরপর থেকে আসামি যুবরাজ জেলহাজতে ছিলো।
মামলায় বিবাদী মীর যুবরাজ দোষী হওয়ায় টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক বেগম খালেদা ইয়াসমিন আসামির উপস্থিতিতে যাবজ্জীবন কারাদ- ও ১ লাখ টাকা জরিমানা করেন।
মামলায় আরো একজনকে আসামি করা হলেও তদন্তের পর চার্জশিট থেকে তার নাম বাদ দেয়া হয়।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন