Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬, ১৩ শাবান ১৪৪১ হিজরী

তদন্তকারীদের সামনে সাক্ষ্য দিতে পারেন ট্রাম্প

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ নভেম্বর, ২০১৯, ৩:২৪ পিএম

চলতি সপ্তাহে ইমপিচমেন্ট ইনকোয়্যারিতে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষীর প্রকাশ্যে বয়ান দেওয়ার কথা। রোববার, হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি ট্রাম্পকে আহ্বান জানিয়েছিলেন, তদন্তকারীদের সামনে দাঁড়িয়ে যেন বয়ান দেন প্রেসিডেন্ট। সে প্রসঙ্গেই সোমবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইট করলেন, ‘যদিও আমি কোনও অন্যায় করিনি এবং এই সাজানো প্রক্রিয়াকে কোনও ধরনের বৈধতাও দিতে চাই না, কিন্তু মার্কিন কংগ্রেসকে ছন্দে ফেরাতে এই প্রস্তাব পছন্দ হয়েছে আমার। গুরুত্ব দিয়ে ভেবে দেখব।’

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিযোগ, আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করার জন্য ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কিকে টেলিফোনে চাপ দিয়েছিলেন তিনি। তার জেরেই হাউসের ইমপিচমেন্ট ইনকোয়্যারি। পুরো প্রক্রিয়াটিকে সাজানো হয়েছে বলে অভিযোগ মার্কিন প্রেসিডেন্টের। পেলোসি অবশ্য রোববারের সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘ওর কাছে যদি কোনও এমন তথ্য থাকে যাতে এই অভিযোগ ভুল বলে প্রমাণিত হয় তাহলে আমরা তা খতিয়ে দেখব।’ এ দিন ট্রাম্প তার টুইটে হাউস স্পিকারকে ‘উন্মাদ, অপদার্থ, ভীত’ সম্বোধন করে লেখেন, ‘উনি চান আমি এই ভুয়া ইমপিচমেন্টে সামিল হই। উনি এ-ও বলেছেন আমি লিখিত ভাবেও বয়ান দিতে পারি।’ চলতি সপ্তাহে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে মার্কিন রাষ্ট্রদূত গর্ডন সন্ডল্যান্ডের সাক্ষ্য দেওয়ার কথা। এই তদন্তে তার সাক্ষ্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তার আগেই ট্রাম্পের এমন টুইট উদ্বেগ বাড়াচ্ছে।

অন্যদিকে, আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করার জন্য বিদেশি রাষ্ট্রপ্রধানকে চাপ দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। সেই তিনি অর্থাৎ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পই এ বার বাইডেনের হয়ে কথা বললেন। উত্তর কোরিয়ার চেয়ারম্যান কিম জং উনকে জবাব দিয়ে রোববার ট্রাম্পের টুইট, ‘জো বাইডেন অলস ও ধীর গতিতে কাজ করেন ঠিকই...কিন্তু উন্মত্ত কুকুরের থেকে অনেকাংশেই ভালো তিনি।’ বাইডেনকে ‘উন্মত্ত কুকুর’ বলে সমালোচনা করেছিল উত্তর কোরিয়া। তারই জবাবে ট্রাম্পের এই টুইট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ট্রাম্প

২৪ জানুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন