Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী

অনলাইনে উত্ত্যক্তকরণ রোধে গ্রামীণফোনের উদ্যোগ

প্রকাশের সময় : ২২ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : আগামী পাঁচ বছরে টেলিনর এশিয়ার  বাংলাদেশ, ভারত, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, পাকিস্তান এবং থাইল্যান্ডের বাজারে ৫০ কোটি তরুণ-তরুণী প্রথমবারের মতো ইন্টারনেটের সঙ্গে যুক্ত হবে। তারা যাতে অনলাইনের সুফল ভোগ এবং  ইন্টারনেটের নেতিবাচক দিক থেকে নিজেদের রক্ষা করতে পারে সে বিষয়ের উপর শিক্ষা প্রদানের পরিকল্পনা করেছে গ্রামীণফোন এবং তার অভিভাবক কোম্পানি টেলিনর। সাইবারবুলিং বা সাইবার উত্ত্যক্তকরণ মূলত ইলেক্ট্রনিক কমিউনিকেশন প্রযুক্তির মাধ্যমে করা হয়ে থাকে যার মূল উদ্দেশ্যই হলো উত্ত্যক্ত করা। বাংলাদেশের ৪৯ শতাংশ স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থী সাইবার বুলিং কোন না কোন সময়ে এর শিকার, ফলে অনলাইন নিবর্তন হ্রাসে শিক্ষার ভূমিকা ক্রমেই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে।
গ্রামীণফোনের হেড অব কমিউনিকেশনস নেহাল আহমেদ বলেন, “তরুণদের প্রতি বিশেষ নজর দিয়ে ইন্টারনেটে নিরাপত্তা বাড়ানোর ক্ষেত্রে গ্রামীণফোন ও টেলিনর দৃঢ়-প্রতিজ্ঞ। টেলিনরের এশিয়া অঞ্চলের আওতায় আগামী ২০১৭ সালের মধ্যে আনুমানিক ১০ কোটি তরুণ ইন্টারনেট ব্যবহারকারী তৈরি হবে। আর তাই সাইবারবুলিং কমানোর লক্ষ্যে এখন থেকেই এ বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি আমাদের উদ্যোগ  অনেক গুরুত্বপূর্ণ।”
বিশ্বের বিভিন্ন দেশে স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের উপর সাইবার হুমকি চিহ্নিত করতে ‘বি স্মার্ট ইউজ হার্ট’ শীর্ষক প্রোগাম নিয়েছে টেলিনর। প্রোগ্রামের আওতায় অনলাইন হুমকি সম্পর্কে শিশু ও অভিভাবকদের প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহ করে টেলিনর যাতে করে কম্পিউটারের পাশাপাশি মোবাইলেও নিরাপদে ইন্টারনেট ব্যবহার করা যায়। তরুণদের নিরাপদে ইন্টারনেট ব্যবহারবিধি সম্পর্কে আরো জানতে টেলিনর গ্রুপের প্রয়োজনীয় তথ্য পাওয়া যাবে প্যারেন্ট গাইড: হাউ টু টক টু ইওর চিল্ড্রেন এ্যাবাউট দ্যা ইন্টারনেট-এ।




 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন