Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ২৪ জানুয়ারী ২০২০, ১০ মাঘ ১৪২৬, ২৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

ঝালকাঠিতে যৌতুক মামলায় ঢাকা সিএমএম আদালতের স্টেনো কারাগারে

ঝালকাঠি জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২১ নভেম্বর, ২০১৯, ৪:০১ পিএম

ঝালকাঠিতে স্ত্রী দায়ের করা যৌতুক মামলায় ঢাকা চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতের স্টেনো কাম টাইপিস্ট আমিনুল ইসলামকে (৪০) কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঝালকাঠির জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতের বিচারক এএইচএম ইমরানুর রহমান এ আদেশ প্রদান করেন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১২ সালের ২ জানুয়ারি ঝালকাঠি শহরের পূর্বচাঁদকাঠি এলাকার আবদুল আজিজ হাওলাদারের মেয়ে সাথি আক্তারের সঙ্গে বিয়ে হয় নলছিটি উপজেলার বিরাট গ্রামের ছোহরাব হোসেনের ছেলে আমিনুল ইসলামের। আমিনুল ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতের স্টেনো কাম টাইপিস্ট পদে চাকরি করেন। তাদের একটি দুই বছরের কন্যা সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকে আমিনুল পাঁচ লাখ টাকা যৌতুকের দাবি করে আসছিল তাঁর স্ত্রীর কাছে। গত বছরের ২৩ নভেম্বর শ্বশুর বাড়িতে বসে আমিনুল স্ত্রীর কাছে পুনরায় যৌতুকের দাবি করা টাকা দিতে চাপ দেয়। এ ঘটনায় ওই বছরের ২৯ নভেম্বর ঝালকাঠির জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে স্ত্রী সাথি আক্তার বাদী হয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। আদালত আসামীর বিরুদ্ধে প্রথমে সমন, পরে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। আমিনুল আদালতে হাজির হয়ে ঘটনা মিমাংসা করে নেওয়ার শর্তে জামিনে মুক্তি পায়। পরে একাধিকবার শালিস মিমাংসার কথা বলেও তিনি রাজি হননি। এ অবস্থায় নির্ধারিত তারিখে বৃহস্পতিবার আমিনুল ঝালকাঠির আদালতে হাজির হলে বিচারক তাকে জেল হাজতে পাঠানো নির্দেশ দেন। বাদীর পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট মানিক আচার্য্য।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কারাগারে


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ