Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী

জৌকুড়া-নাজিরগঞ্জ রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ

রাজবাড়ী জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৩ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০২ এএম

রাজবাড়ীর জৌকুড়া ও পাবনার নাজিরগঞ্জ নৌরুটে ফেরি চলাচল আবারও বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এতে এই নৌরুট ব্যবহারকারী বিভিন্ন এলাকার যানবাহনের চালক-শ্রমিক ও যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পড়েছে।

স্থানীয়রা বলছেন, গত ঈদ-উল-আযাহার পর থেকে আজ পর্যন্ত ৪/৫ দিন ফেরি চলাচল করেছে এ নৌরুটে। সরেজিমন দেখা গেছে, নৌরুটের জৌকুড়া ঘাট এলাকায় পদ্মা নদীতে নাব্যতা সংকটে ফেরিগুলো স্বাভাবিক ভাবে চলতে পারছে না। এভাবে বিভিন্ন কারণে প্রায় এ রুটে ফেরি বন্ধ থাকে।

এ ব্যাপারে গত বুধবার রাজবাড়ীর সড়ক ও জনপথ বিভাগের পক্ষ থেকে গণবিজ্ঞপ্তি জারী করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘পদ্মা নদীর পানি হ্রাস পাওয়ায় সৃষ্ট নাব্যতা সংকটের কারণে রাজবাড়ী সড়ক বিভাগাধীন জৌকুড়া-নাজিরগঞ্জ রুটের ফেরি চলাচল সাময়িকভাবে বন্ধ আছে। ফেরি চলাচলের সুবিধার্থে নাজিরগঞ্জ প্রান্তের ঘাট স্থানান্তর এবং একই সাথে জৌকুড়া প্রান্তের ঘাট সংস্কার কাজ চলমান আছে। উক্ত কাজটি সম্পন্ন করতে আরও কয়েকদিন প্রয়োজন। আগামী ২৫/১১/২০১৯ খ্রি. পর্যন্ত জৌকুড়া-নাজিরগঞ্জ ফেরি রুটের ফেরি চলাচল বন্ধ থাকবে।’

এ ব্যাপারে নৌরুটে চলাচলরত ফেরির খালাসি মো. আবুল হোসেন, সুকানি মো. বজলুল রহমান, গ্রিজার মো. এরশাদ রহমান ও ইয়াছিন মোল্যা বলেন, নৌরুটের পদ্মা নদীতে পানি কম থাকায় অধিকাংশ এলাকা জুড়ে চর জেগে উঠেছে। ফেরিগুলো সোজাভাবে চলাচল করতে ব্যাঘাত ঘটছে। অতি দ্রæত ড্রেজিং ও ঘাট সংস্কার না করা হলে নৌরুটে চলাচলরত যাত্রীদের দুর্ভোগ চরমে।
তারা আরো বলেন, নৌরুটে চলাচলরত ফেরি দুটির ইঞ্চিনের হর্স পাওয়ার কম থাকায় বর্ষার সময় নদীর স্রোতের বিপরীতে চলতে পারে না। ফেরিগুলো মাঝে মধ্যেই অকেজো হয় পড়ে থাকে ঘাট এলাকায়।

জৌকুড়া-নাজিরগঞ্জ নৌরুটের ফেরি চলাচল আবার বন্ধ হওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে রাজবাড়ী সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী কেবিএম সাদ্দাম হোসেন বলেন, পদ্মার পানি হ্রাস পাওয়ায় নাব্যতা সংকটে আমরা ফেরি চলাচল বন্ধ রেখেছি। গণবিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ঘাটের কাজ শেষে পুনরায় ফেরি চলাচল শুরু করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন