Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

মেঘে ভেসে বিয়ে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

আকাশে ওড়াউড়ির খেলা খেলতে খেলতে আলাপ ও বন্ধুত্ব। তারপর প্রেম। আর ছয় বছরের প্রেমপর্ব পরিণয়ে যখন বদলে গেল, তখনও সাক্ষী আকাশ। হেঁয়ালি মনে হচ্ছে? তাহলে খুলেই বলা যাক অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড আর নিউজিল্যান্ডের ক্যাথির এই প্রেম-পরিণয়ের কাহিনী।

২০১১ সালের কথা। দু’দেশের দু’প্রান্তে বসে একটি ভিডিওগেম খেলতে খেলতে একে অপরকে চিনেছিলেন ডেভিড আর ক্যাথি। খেলার নাম ছিল ‘এয়ারপোর্ট সিটি’।
এক বছর ধরে তারা চ্যাটের মাধ্যমে কথাবার্তা বলতেন। তারপর শুরু হয় ফোনে কথোপকথন এবং এর মাঝেই একে অন্যের প্রতি প্রেমানুভ‚তি টের পান। ক্যাথির কথায়, ‘আমাদের দু’জনেরই উড়ানের প্রতি আকর্ষণ রয়েছে। যা আমাদের পরস্পরকে কাছে এনেছে’।
তিনি বলেন, ‘আমরা এক বছর ধরে শুধু চ্যাটে কথা বলেছিলাম। তারপর ওর জন্মদিনে আমি সাহস করে ফোন করে শুভেচ্ছা জানাই। তখন থেকে প্রেমের শুরু।’ ২০১৩ সালে সিডনি বিমানবন্দরে প্রথম একে অন্যকে দেখেন। ৬ বছর প্রেমপর্বের পর যখন বিয়ের সিদ্ধান্ত নিলেন ডেভিড-ক্যাথি, তখনও মাটিতে পা রেখে নয়। আকাশে উড়েই একে অপরের চিরসাথী হওয়ার অঙ্গীকার করেন।
অকল্যান্ড থেকে সিডনি তাসমান সমুদ্রের উপর দিয়ে এই দূরত্ব পার হতে একেবারে মাঝ আকাশে বিমানের সহযাত্রীদের সাক্ষী রেখে মধ্যে উভয়ের আংটি বদল, জীবনভর একত্রে থাকার মন্ত্রোচ্চারণ।
বিমানের শতাধিক যাত্রী দুই তরুণ-তরুণীর এমন কান্ড দেখলেন। চমকে গিয়েছেন পাইলট, কেবিন ক্রু ও বিমান সেবিকারাও। উপহার হিসেবে তেমন কিছু না দিতে পারার আক্ষেপ থাকলেও, ডেভিড-ক্যাথির এমন এক বিশেষ দিনের আনন্দের ষোল আনাই তারা পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন বিমানকর্মীরা।
যে বিমানে চড়ে নিজেদের দাম্পত্য জীবন শুরু করলেন ক্যাথি-ডেভিড, সেই জেটস্টারের এক কর্মী রবিন হল্ট জানাচ্ছেন, ওরা যখন বিয়ে করেন, তখন বিমান তাসমান সমুদ্র থেকে ৩৪ হাজার ফুট উপরে। এমন বিস্ময়কর ঘটনা অনেকেই রেকর্ড করে রেখেছেন মোবাইলে।
পুরো পরিকল্পনাটাই নাকি ক্যাথির। তিনিই চেয়েছিলেন, বিয়েটাও হোক আকাশে উড়ে। অনেকেই বলছেন, এ তো মেঘে ভেসে বিয়ে! জেটস্টারের এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছে। শুভেচ্ছার বন্যায় ভাসছেন নবদম্পতি। সূত্র : ডেইলি মেইল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ