Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

উপকূলীয় অঞ্চলে বরাদ্দ বাড়ানোর দাবি এমপিদের

প্রকাশের সময় : ২৩ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : উপকূলবর্তী এলাকার নদী ভাঙন রোধ ও বাঁধ সংস্কার করার দাবি জানিয়ে উপকূল অঞ্চলের এমপিরা বরাদ্দ বাড়ানোর তাগিদ দিয়েছেন। বাজেটে উপকূল এলাকার জন্য বেশি বরাদ্দ রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা। গতকাল বুধবার জাতীয় সংসদের মন্ত্রী হোস্টেলে আইপিডি সম্মেলন কক্ষে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব, সাম্প্রতিক ঘূর্ণিঝড় ও উপকূলের সুরক্ষা শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে এ দাবি জানান এমপিরা।
পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতির কার্যালয় ও বেসরকারি সংস্থা কোস্ট ট্রাস্ট যৌথভাবে এ গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করে।
সংসদীয় কমিটির সভাপতি ড. হাছান মাহমুদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পানিসম্পদ মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। এছাড়া প্যানেল আলোচনায় অংশ নিয়ে মতামত তুলে ধরেন, সংসদ সদস্য আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন, তালুকদার মো. ইউনুস, তালুকদার আব্দুল খালেক, এ কে শাহজাহান কামাল, মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, মো. নবী নেওয়াজ, পঞ্চানন বিশ্বাস, টিপু সুলতান, নাহিম রাজ্জাক, এম এ আউয়াল, রহিম উল্লাহ, জেবুন্নেছা আফরোজ, আলী আজম, মো. ইলিয়াছ এবং আশেক উল্লাহ রফিক। সেন্টার ফর পলিসি রিসার্চের চেয়ারম্যান ড. আতিক রহমান, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের প্রতিনিধি, উন্নয়ন ধারা ট্রাস্ট-এর মেম্বার সেক্রেটারি, কোস্ট ট্রাস্টের সিও রেজাউল করিম চৌধুরীও বৈঠকে বক্তব্য রাখেন।
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, উপকূলীয় এলাকায় বেড়িবাঁধ তৈরি, নদী ভাঙন রোধে ব্যবস্থা, নদীর গতিপথ ফিরিয়ে আনা, চ্যানেল খনন, সøুইস গেট সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণ ও পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ে বেশি করে বাজেট বরাদ্দের সুপারিশ করেন।
কোস্ট ট্রাস্টের সুপারিশকৃত এলাকায় বেড়িবাঁধ নির্মাণ এবং ৬০-এর দশকে নির্মিত বেড়িবাঁধ সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণ, জলবায়ু ট্রাস্টের টাকা সঠিকভাবে সঠিক জায়গায় ব্যয় করা, পার্লামেন্ট ককার্স টিম গঠন, উপকূলীয় বোর্ড গঠন, উপকূলকে নিয়ে পৃথক বাজেট প্রণয়নের সুপারিশ করেন বক্তারা।
পানিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, উপকূলীয় এলাকার জন্য নতুন নতুন প্রকল্প পাস করা হয়েছে, বাঁধগুলো শক্তভাবে করা, সিএমবি নামে একটি নতুন প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। এছাড়া তিনি কোস্ট ট্রাস্টের প্রতিনিধিদের পলিসি পেপার তৈরি করে সংসদ সদস্যসহ মন্ত্রণালয়কে প্রেরণের অনুরোধ করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন