Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার , ১৮ জানুয়ারী ২০২০, ০৪ মাঘ ১৪২৬, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

হংকংয়ে স্থানীয় নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০৯ পিএম

হংকংয়ে আজ স্থানীয় নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। এর মধ্য দিয়ে চীনের কাছে একটি বার্তা দিতে চায় গণতন্ত্রপন্থি প্রতিবাদকারীরা। তারা এই নির্বাচনে যাতে কোনোই বিঘœ না ঘটে সেজন্য সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। কারণ, ৫ মাস ধরে চলা রাজনৈতিক অস্থিরতার পর এ নির্বাচনকে তারা বেইজিংয়ের কাছে একটি শক্ত বার্তা পাঠানোর হাতিয়ার হিসেবে নিয়েছে। এ খবর দিয়ে অনলাইন বিবিসি বলছে, সকাল থেকেই ভোটগ্রহণ কেন্দ্রগুলোতে দীর্ঘ লাইন দেখা যাচ্ছে। এর আগের নির্বাচনের চেয়ে এবার সকাল সকাল দ্বিগুনেরও বেশি মানুষ ভোট দিচ্ছেন। ভোটকেন্দ্রে বড় ধরনের কোনো বিঘœ ঘটলে ভোট নেয়া স্থগিত করার হুমকি দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।
তেমনটা হলেই ভোট বন্ধ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। হংকংয়ে এই ভোটে নিবন্ধিত ভোটারের সংখ্যা ৪১ লাখ। সেখানকার মোট জনসংখ্যা ৭৪ লাখ। এই নির্বাচনে হংকংয়ে ডিস্ট্রিক্ট কাউন্সিলে নির্বাচিত হবেন কমপক্ষে ৪০০ কাউন্সিলর। এর মাধ্যমে নিজেদের জনপ্রতিনিধি বাড়িয়ে গণতন্ত্রপন্থি আন্দোলনে চাপ সৃষ্টিতে জোর পাবেন বলে মনে করছেন গণতন্ত্রপন্থি আন্দোলনকারীরা। এই কাউন্সিল শহরটির প্রধান নির্বাহী বাছাই করার ক্ষেত্রে প্রভাব রয়েছে। অন্যদিকে চীনপন্থি প্রার্থীরা তাদেরকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন, যাতে চলমান হতাশাজনক অবস্থার উত্তরণ ঘটানো যায়।
এবার কাউন্সিলে তাদের প্রতিনিধিত্ব বাড়ানোর আশা করছে গণতন্ত্রপন্থি আন্দোলনকারীরা। নগরীর প্রধান নির্বাহী বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে ঐতিহ্যগতভাবে এই কাউন্সিলের কিছুটা প্রভাব আছে।
অপরদিকে প্রতিবাদকারী ও পুলিশের মধ্যে চলা ধারাবাহিক সংঘর্ষ, অস্থিরতা নিয়ে হতাশা প্রকাশ করতে ভোটারদের তাদের প্রতি সমর্থন জানানোর আহ্বান জানিয়েছে বেইজিংপন্থি আন্দোলনকারীরা।
রোববার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৭টায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়। এবার ভোট দিতে নাম রেজিস্ট্রি করেছে ৪১ লাখ লোক, যা একটি রেকর্ড। হংকংয়ের জনসংখ্যা ৭৪ লাখ। কাউন্সিলের ৪৫২ আসনের জন্য ১১০৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন। আরও ২৭টি আসন গ্রামীণ এলাকার প্রতিনিধিদের জন্য বরাদ্দ। এবার প্রথমবারের মতো সব আসনে প্রতিদ্ব›িদ্বতা হচ্ছে।
কাউন্সিলরা স্থানীয় পরিষদের কিছু ব্যয় নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি রিসাইকেলিং, পরিবহন ও গণস্বাস্থ্যের মতো এলাকার স্বার্থ বিষয়ক বহু সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে থাকে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে। হংকংয়ের বর্তমান স্থানীয় পরিষদে বেইজিংপন্থিদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন