Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ২৪ চৈত্র ১৪২৬, ১২ শাবান ১৪৪১ হিজরী

ভারতের আবহাওয়া মাপার যন্ত্র উড়ে এসে বাংলাদেশে পড়ল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ নভেম্বর, ২০১৯, ৪:১২ পিএম

ভারতের আবহাওয়া মাপার একটি যন্ত্র উড়ে এসে আছড়ে পড়েছে বাংলাদেশের ভূখন্ডে। গতকাল রোববার (২৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার হাউলী গ্রামে এ যন্ত্রটি বেলুনের মাধ্যমে উড়ে এসে পড়ে। এর পরপরই আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়। খবর পেয়ে দামুড়হুদা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে যন্ত্রটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। দামুড়হুদা মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, রোববার সন্ধ্যার সময় একটি বিশাল আকৃতির বেলুন উড়ে এসে দামুড়হুদার দেউলী গ্রামের নুর মোহাম্মদের ছেলে আবুল কালামের গমক্ষেতে পড়ে। ওই বেলুনের সঙ্গে ছিল প্লাস্টিকের আদলের একটি সোলারবক্স, একটি ব্যাটারি ও তিন মাথাওয়ালা ক্যামেরার সমন্বয়ে একটি সার্কিট। বাক্সটির প্যাকেটে ভারতীয় ছোট আকৃতির পতাকা দিয়ে ওপরের অংশ ঢাকা ছিল।
গমক্ষেতের মালিক আবুল কালাম জানান, সন্ধ্যার কিছুক্ষণ আগে একটি বড় বেলুনের সঙ্গে বাঁধা বাক্সটি উড়ে এসে পড়লে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়। পরে দামুড়হুদা থানায় খবর দেয়া হয়। খবর পেয়ে পুলিশ সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে ভারত থেকে উড়ে আসা যন্ত্রটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান।
দামুড়হুদা মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস জানান, এগুলো আবহাওয়া ও বৃষ্টির সম্ভাবনা মাপার যন্ত্রপাতি। ভারতীয় পতাকা সস্মলিত বাক্সের গায়ে বাংলায় লেখা আছে, ‘বেলুন ফোলা অবস্থায় ধূমপান করবেন না, বাক্সটিকে জলে ডোবাবেন না, লাঠির আঘাত করবেন না, আগুনে পোড়াবেন না, পুলিশ বা সংস্থার কর্তৃপক্ষ না আসা পর্যন্ত হাত দেবেন না, বাক্সটি ক্ষতি বা আঘাত করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ, বাক্সটি বিপজ্জনক নয়।
পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম বলেন, ভারত থেকে বেলুনের মাধ্যমে যন্ত্রটি বাংলাদেশের ভূখন্ডে পড়ার পর বাক্সটির গায়ে থাকা নম্বরে আমরা যোগাযোগ করে নিশ্চিত হয়েছি সেটি আবহাওয়া ও বৃষ্টি মাপার যন্ত্র। ভারতের কৃষ্ণনগরের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসার সঞ্জিব চক্রবর্তী এটির আবিষ্কারক। মূলত জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতি নিরুপণের যন্ত্র এটি। পরীক্ষামূলক উড্ডয়নের সময় অতিরিক্ত বাতাস থাকার কারণে রাডার থেকে ছিটকে পড়ে বাংলাদেশের ভূখন্ডে চলে আসে বলে জানিয়েছেন আবিষ্কারক প্রফেসার সঞ্জিব চক্রবর্তী।
চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার জানান, বিষয়টি ইতোমধ্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়কে অবহিত করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশনা পেলেই এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন