Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

ডাকাতির আলামত বিক্রির অভিযোগ, তদন্ত কেন্দ্রের দুই পুলিশ সাময়িক বরখাস্ত

সাভার থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ নভেম্বর, ২০১৯, ৫:৫২ পিএম

ঢাকার ধামরাইয়ে ডাকাতি মামলায় জব্দকৃত আলামত তিনটি ইজিবাইক (ব্যাটারিচালিত যান) বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে একটি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের দুই সদস্যের বিরুদ্ধে।
এঘটনায় বুধবার রাতে পুলিশের কাওয়ালীপাড়া বাজার তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক একেএম ফজলুল হক ও এএসআই শামীম আল মামুনকে উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার দুপুরে জানিয়েছেন ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক চন্দ্র সহা।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে তদন্ত কেন্দ্রের এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, গত ২৭ সেপ্টম্বর দিবাগত রাতে ধামরাই উপজেলার জালসা গ্রামের সাইদ মিয়ার, আজাহার ও শাজাহান মিয়ার বাড়িতে দুর্ধষ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।
তখন ডাকাতদের ছুরিকাঘাতে সাইদ মিয়ার ছেলে জালসা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্র রমজান আলী রঞ্জন (১৭) মারা যায়।
ওই ঘটনায় ধামরাই থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের পর মামলার তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয় কাওয়ালীপাড়া বাজার তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক একেএম ফজলুল হককে।
এমামলাটির তদন্ত করতে গিয়ে তিনি আশুলিয়ার জিরানি এলাকায় একটি ইজিবাইকের গ্যারেজ থেকে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত তিনটি ইজিবাইক জব্দ করেন। জব্দের সময় তদন্ত কাজে সহায়ক হিসেবে এএসআই শামীম আল মামুন উপস্থিত ছিলেন।
পরে ইজিবাইক তিনটি ডাকাতি মামলার আলামত হিসেবে কাওয়ালীপাড়া বাজার তদন্ত কেন্দ্রে রাখা হয়। কিন্তু হঠাৎ বুধবার সকালে জব্দ ইজিবাইক তিনটি দেখতে না পেয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিক্রির অভিযোগ তুলে বাকবিতন্ডায় জরিয়ে পরেন তদন্তে সহায়তাকারী এএসআই শামীম। এরপরই বিষয়টি ধিরে ধিরে জানাজানি হয়ে পরে।
তদন্ত কেন্দ্রের মুন্সি কনস্টেবল মাসুম হোসেন বলেন, ইজিবাইক তিনটি মামলার আলামত হিসেবে জব্দ তালিকায় রয়েছে। সেগুলো হঠাৎ কোথায় গেছে তা ইনচার্জ স্যার বলতে পারবে।
এ বিষয়ে জানতে কাওয়ালীপাড়া বাজার তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক একেএম ফজলুল হক ও এএসআই শামীম আল মামুনের মুঠফোনে ফোন করলে গণমাধ্যম কর্মী পরিচয় পাওয়ার পরই ফোনের লাইন কেটে ফোন বন্ধ করে দেন তারা।
ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক চন্দ্র সহা বলেন, কাওয়ালীপাড়া বাজার তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক একেএম ফজলুল হক ও এএসআই শামীম আল মামুনের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠায় উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তাদের সাময়ীক বরখাস্ত করা হয়েছে। এবং তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ