Inqilab Logo

শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর সময় মির্জাপুরে তিন পুলিশসহ ৪ জন ধৃত, গণধোলাই

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৮ নভেম্বর, ২০১৯, ৯:০৭ পিএম

পকেটে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর সময় মির্জাপুর থানার বাশতৈল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই রিয়াজুলসহ চার পুলিশ সদস্যকে আটক করে জনতা গণধোলাই দিয়েছে বলে গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে । ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সন্ধায় টাঙ্গাইলের সখিপুর উপজেলার হতিয়া রাজাবড়ির গাবিলার বাজার এলাকায়।
আটককৃত পুলিশ সদস্যরা হল বাশতৈল পুলিশ ফঁড়ির এএসআই রিয়াজুল ইসলাম, কনস্টেবল গোপাল সাহা, রাসেল ও পুলিশের সোর্স হাসান।
জানা গেছে, এএসআই রিয়াজের নেতৃত্বে ওই পুলিশ সদস্যরা গাবিলার বাজারে গিয়ে হতিয়া রাজাবাড়ির ভাতকুড়াচালার ফরহাদ মিয়ার ছেলে বজলুকে পকেটে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা করে। এসময় স্থানীয় জনতা বিষয়টি টের পেয়ে পুলিশ সদস্যদের আটক করে রাজাবাড়ি আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়ে যায়। সেখানে তাদের গণধোলই দিয়ে এক কক্ষে আটকে রাখে। খবর পেয়ে এলাকার শত শত জনতা ঘটনাস্থলে ভীর জমায়। এই খবর পেয়ে সখিপুর এবং মির্জাপুর থানা পুলিশ পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে রওনা হয়েছেন বলে জানা গেছে।
সখিপুরের বরচনা কলেজের শিক্ষক আব্দুল লতিফ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।
বুধবার একই কায়দায় এএসআই রিয়াজ তার সহযোগীদের নিয়ে মির্জাপুর থানার টান পলাশতলী গ্রামের বাছেদ মিয়ার ছেলে আনোয়ারের নিকট থেকে এক লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সায়েদুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন এস আই ফয়েজ উদ্দিনের নেতৃত্বে মির্জাপুর থানার মোবাইল টিম ঘটনাস্থলে দিকে রওনা দিয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পুলিশ আটক

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ