Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১২ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আগুনে মাদরাসা বসত ঘর পুড়ে ছাই অক্ষত কোরআন শরীফ

আনোয়ারা (চট্টগ্রাম) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:১৭ এএম


 চট্টগ্রামের আনোয়ারায় রান্না ঘরের চুলার আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে মাদরাসা, বাসা, মুদির দোকান ও হোটেল। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর রাতে উপজেলার বৈরাগ ইউনিয়নের শাহাদাত নগর মেরিন একাডেমী ও সিইউএফএল সড়কের পাশে স্থানীয় তৈল নাছিরের কলোনীতে এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় নাছিরের কলোনীর মাজ্জাতুল তাক্বাওয়া মাদিনাতুল উলুম মাদরাসা, একটি মুদির দোকান, পাঁচটি ভাড়া বাসা, একটি হোটেল ও রান্নাঘর আগুনে পুড়ে যায়।
আনোয়ারা ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার দুলাল চন্দ্র মিত্র বলেন, ফায়ার সার্ভিসের দুটি গাড়ির টিম প্রায় দেড় ঘন্টা চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তিনি আরো বলেন, রান্নার চুলা থেকে আগুনে সূত্রপাত ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। মাদরাসা, দোকানসহ কলোনীর ভাড়া বাসা আগুনে পুড়ে গেছে। তবে আগুন আশপাশে ছড়িয়ে পড়ার আগেই নিয়ন্ত্রণে আনেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।
মাজ্জাতুল তাক্বাওয়া মাদিনাতুল উলুম মাদরাসার প্রধান শিক্ষক মুফতি আবদুল মান্নান বলেন, আমাদের মাদরাসার সব কিছু আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। কিছুও বের করা সম্ভব হয়নি। সব কিছু পুড়ে গেলেও আল্লাহ্ রহমতে কোরআন শরীফ আগুনে পুড়েনি। লক্ষাধিক টাকার মত ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আগামী সপ্তাহে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা শুরু। এই মূহূর্তে কি করব বুঝতে পারছি না।

 

 



 

Show all comments
  • Fatema Tuj Johura ২৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২০ এএম says : 0
    Allahu amin .. allah sobaik hefazot korun
    Total Reply(0) Reply
  • Md Jaynal Abedin ২৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২১ এএম says : 0
    আল্লাহু আকবার
    Total Reply(0) Reply
  • Rafiqul Islam ২৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২১ এএম says : 0
    মহান আল্লাহ্ আমাদের প্রত্যেকে র সহায় হোন। আমিন।
    Total Reply(0) Reply
  • M. Rejaul Karim ২৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    আল্লাহ তায়ালা নিজেই কুরআইনের হেফাজতকারী
    Total Reply(0) Reply
  • Saleh Ahmed ২৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    Alhamdulillah..
    Total Reply(0) Reply
  • MD.Kamal Uddin ২৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    আল্লাহ বড়ই মেহের বান
    Total Reply(0) Reply
  • Kashbe Khan Chowdhury ২৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৩ এএম says : 0
    আল্লাহর এতো কুদরত দেখেও অবিশ্বাসরা মুখ ফিরিয়ে রেখেছে। আল্লাহ তাদের হেদায়েত দান করুন।
    Total Reply(0) Reply
  • Kazi Shariful Islam ২৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৫ এএম says : 0
    আল্লাহ আমাদের সকলকে হেফাজতে রাখুন আমিন
    Total Reply(0) Reply
  • Abu Kamran Rahul ২৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৫ এএম says : 0
    অগ্নিকাণ্ড থেকে অক্ষত থাকা কুরআন অথবা মাসজিদের ছবি দেখিয়ে ইসলামের সত্যতা প্রমাণের প্রচেষ্টা চালানো উচিত নয়। এই পদ্ধতিতে ইসলামের উপকারের পাশাপাশি অপকারও হয়। . পূর্বে বহু আগুনের ঘটনা ঘটেছে এবং সেগুলোতে অন্যান্য বস্তুর পাশাপাশি কুরআন পুড়েছে। তেমনি বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে মাসজিদ ধ্বংস হয়েছে। . আপনি যখন ইসলামের সত্যতা প্রমাণে কুরআন বা মাসজিদ অক্ষত থাকার কোন ছবি সামনে আনবেন, ঠিক তখন আরেকজন আগুনে পোড়া কুরআনের বা ধ্বংসপ্রাপ্ত মাসজিদের ছবি সামনে নিয়ে আসতে পারেন। তখন কি ইসলাম চ্যালেঞ্জে পড়ে যাবে? মোটেই না। ইসলাম নিজেই একটি উজ্জ্বল বাতিঘর; একে অন্য আলোর মাধ্যমে আলোকিত করতে হয় না। আমরা মাতব্বরি দেখাতে গিয়ে নিজেরাই খাদে পড়ি। . ইন্দোনেশিয়ার ভয়াবহ সুনামিতে আচেহ প্রদেশে একটি মসজিদ ধ্বংসযজ্ঞের মাঝেও টিকে যায়। এটা নিয়ে আমরা আলোচনায় মেতে উঠি, অথচ এই সুনামিতেই অন্যান্য স্থানের অনেক মাসজিদ-যে ধ্বংস হয়েছে সেটার কথা বেমালুম ভুলে যাই। . তবে, এটা ঠিক যে, বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে এবং অগ্নিকাণ্ডে কুরআন এবং মাসজিদ অক্ষত থাকার বহু বিস্ময়কর ঘটনা দেখা যায়। এগুলো মুমিনদের ঈমানকে বৃদ্ধি করে। তবে, এগুলো দেখিয়ে বেড়ানোর বিষয় নয়। বিশেষত, নাস্তিক এবং ভিন্ন ধর্মাবলম্বীরা এসব কারণে ইসলামকে নিয়ে ট্রল করার সুযোগ পায়।
    Total Reply(0) Reply
  • ** মজলুম জনত ** ২৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ পিএম says : 0
    আল্লাহ কোরান শরিফ হিফাজত করেছন। ইহা আল্লাহর অলৌকিক নির্দশন।আল্লাহ আমাদের সঠিক বুঝদান করুন।তার নির্দেশিত পথে চলার তৌফিক দান করুন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ