Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

মানবিক কারণে বেগম খালেদা জিয়া মুক্তি পাবেন

আলোচনা সভায় মওদুদ আহমদ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়ে আশাবাদ ব্যাক্ত করেছেন। তিনি বলেন, ‘মানবিক’ কারণেই সুপ্রিম কোর্টের আপীল বিভাগ বেগম খালেদা জিয়াকে জামিন দেবেন বলে আশা করি। গতকাল এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।
মওদুদ আহমদ বলেন, আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জামিন মানবিক কারণেই হবে। অন্যান্য সব বাদই দিলাম, যে মামলায় কোনো সাক্ষী নাই, তার কোনো তথ্য নাই, তার কোনো সিগনেচার নাই, তার কোনো ভূমিকা নাই, কিন্তু তারপরেও আমরা ওদিকে না গিয়ে শুধু মানবিক কারণে তার জামিন চেয়েছি। এই জামিনটা শুধু মানবিক কারণে আদালতের উচিত হবে তার মুক্তি দেয়া। আমি আশা করছি যে, আদালত তাকে জামিন দেবেন আগামী সাপ্তাহে। যদি না দেন তাহলে বুঝতে হবে সরকারের রাজনৈতিক কারণেই তার মুক্তি হচ্ছে না, মানবিক কারণেও তার মুক্তি হচ্ছে না।

বিএসএমএমইউতে চিকিতসাধীন খালেদা জিয়ার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রতিবেদন চেয়ে পাঠানো সম্পর্কে সুপ্রিম কোর্টের আপীল বিভাগের সিদ্ধান্তে সন্তোষ প্রকাশ করে মওদুদ আহমদ বলেন, আজকে যে রিপোর্টটা আপীল বিভাগ কল করেছেন- আমরা এতে খুশি হয়েছি। আদালত এটা কল করেছে, আগামী ৫ ডিসেম্বর সেটা আসবে। ওই রিপোর্টে খালেদা জিয়ার ‘পঙ্গু’ হওয়ার বিষয়টি লেখা আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই বোর্ডে যেসব ডাক্তাররা আছেন তারা দেশের সবচাইতে উপযুক্ত ডাক্তাররা আছেন। তারা বলছেন, তিনি (খালেদা জিয়া) ক্রিপল হয়ে গেছেন। ক্রিপল মানে পঙ্গু শব্দটা ব্যবহার করেছেন। আর বিশেষ তিনটা রোগের কথা বলেছেন, সেগুলোর এডভাইন্স ট্রিটমেন্টের প্রয়োজন। অর্থাৎ এখন উনি যে টিট্রমেন্ট পাচ্ছেন সেটা যথেষ্ট নয়।

মওদুদ আহমদ বলেন, বাংলাদেশের মানুষ দুই শ্রেনীর মানুষকে অত্যন্ত শ্রদ্ধা করে। একটি হলো বিচারপতিদের, বিচারক যারা, যারা বিচার করেন। সুপ্রিম কোর্টে যারা বসেন তাদেরকে মানুষ অনেক উঁচু চোখে উঁচু মানের বলে তারা মনে করতেন। মনে করতেন তাদের মধ্যে ইনটিগ্রিটি আছে, তাদের মধ্যে অনেষ্টি আছে। তারা হলেন একেবারে আল্লাহ‘তালার পরেই তো তাদের ক্ষমতা মানুষের বিচার করা।

আরেকটি হলো বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও শিক্ষক, তাদের প্রতি সন্মান। আজকে তা বিনষ্ট হয়ে গেছে। আজকে ১১টি পাবলিক ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সলরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ। কেনো? এরা কারা? এরা দলীয়ভাবে নিযুক্ত, দক্ষতার মাপকাঠিতে এরা নিযুক্ত হয়নি।
মওদুদ আহমদ বলেন, বর্তমান সরকারের অবস্থা নাজুক। যতই দিন যাচ্ছে ততই মনে হচ্ছে সরকার রাষ্ট্র পরিচালনায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেছে। বিভিন্ন খাতে যদি আপনারা পর্যালোচনা করে দেখেন- সেই ব্যাংকিং খাতই বলেন, আর্থিক খাত বলেন, সামাজিক খাত বলেন, সামাজিক অপরাধের কথা বলেন- প্রত্যেকটা ক্ষেত্রে আমরা দেখছি-সরকারের নিয়ন্ত্রণ আস্তে আস্তে শিথিল হতে চলেছে। এর একটি মাত্র কারণ হলো যে, সরকার একটি অনির্বাচিত সরকার। সংবিধান অনুযায়ী যে সরকারের কথা বলা হয় সেই সরকার এই সরকার নয়। ভোট ছাড়া তারা রাষ্ট্র পরিচালনা করছে।

তিনি বলেন, দেশের মানুষ পরিবর্তন চায়, এই পরিবর্তনটা যত শিগগিরই আসবে দেশের জন্য তত মঙ্গল হবে। এই পরিবর্তন কিভাবে আসবে? সেটা হচ্ছে- জনগনের উত্থানের মাধ্যমেই এই সরকারের পতন হবে।
মওদুদ আহমদ বলেন, জনগন এই সরকারের ওপর ক্ষুব্ধ। এখন দেশের মানুষ আন্দোলন চায়, কর্মসূচি আমরা দেবো এবং সেই কর্মসূচি সময়মত উপযুক্ত সময় দেবো। এখনো পুরোপুরি উপযুক্ত সময় এসছে বলে আমি মনে করি না। উপযুক্ত সময়ে যখন আমরা কর্মস‚চি দেবো বাংলাদেশের মাটিতে গণ বিস্ফোরণ ঘটবে। দেশের মানুষ বেগম জিয়াকে মুক্ত করে আনবে, দেশ গণতন্ত্র ফিরে আসবে, আইনের শাসন ফিরে আসবে, বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ফিরে আসবে এবং দেশের মানুষ আবার স্বস্তি ফিরে পাবে জীবনযাত্রার।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু বলেন, ভোটারবিহীন সরকার এদেশকে একটা ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। দেশের মানুষের মৌলিক মানবাধিকার বলতে কিছুই নেই। তিন বারের প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় সরকার অন্যায়ভাবে কারাবন্দি করে রেখেছে। আন্দোলন ছাড়া তাকে মুক্তি করা সম্ভব নয়। তাই তাকে মুক্তির জন্য সবাইকে সর্বাত্মক আন্দোলনের প্রস্তুতি নিতে হবে। দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকারের শুদ্ধি অভিযান লোক দেখানো বলে এর কঠোর সমালোচনা করেন তিনি।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে বাংলাদেশ লেবার পার্টির ঢাকা মহানগর দক্ষিনের এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে মাওলানা আনোয়ার হোসেইনকে সভাপতি ও হুমায়ুন কবীরকে সাধারণ সম্পাদক করে ২১ সদস্যের নতুন কমিটি ঘোষণা করেন লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান।
মহানগর দক্ষিনের সভাপতি আনোয়ার হোসেইনের সভাপতিত্বে সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ফারুক রহমান, কেন্দ্রীয় নেতা হুমায়ুন কবীর, খোন্দকার সিরাজুল ইসলাম, ছাত্র মিশনের সৈয়দ মো. মিলন, শরিফুল ইসলাম, যুব মিশনের সৈকত চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।



 

Show all comments
  • Abdur Raheem ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৪ এএম says : 0
    দেখা যাক না কথাটা কতটুকু সত্যি হয় তবে বিশ্বাস হচ্ছে না
    Total Reply(0) Reply
  • Sumon Mubarak ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৪ এএম says : 0
    জালিমের কারাগারে খালেদাজিয়া মারা গেলে, তার জবাব ভয়ংকর এখন থেকে মাথায় নিয়ে ঘুমান,
    Total Reply(0) Reply
  • Billal Khan ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৬ এএম says : 0
    জাগো বাঙালি আরেকবার জাগো একাত্তরের হাতিয়ার হয়ে জাগো 2019 এ জাগো আরেকবার জাগো
    Total Reply(0) Reply
  • MD Shakil Rayhan ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৬ এএম says : 0
    কবে ঈদের পরে নাকি আগে
    Total Reply(0) Reply
  • Nasir Uddin Muznu ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৬ এএম says : 0
    কথায় নয় কাজে প্রমান করুন।
    Total Reply(0) Reply
  • Fariha jannat Humaira ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৭ এএম says : 0
    এক বৃদ্ধা মহিলাকে এত নির্যাতন করা হচ্ছে। সবাই ক্ষমতার দাপট দেখায়। নিজের এলাকায় কুকুরও বাঘ হয়ে যায়
    Total Reply(0) Reply
  • Durga Subedi ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৮ এএম says : 0
    একটা বৃদ্ধ মহিলা কেন জামিন পাবে না তার কি বেঁচে থাকার অধিকার নেই খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই
    Total Reply(0) Reply
  • Firos Firos ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৮ এএম says : 0
    ইনশাআল্লাহ নেত্রী মুক্তি পাবেন
    Total Reply(0) Reply
  • ahammad ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ২:০২ এএম says : 0
    জনাব, আপনারা নেতারা কানেতৈল দিয়ে গুমান আর দঃস্বপ্ন দেখতে থাকুন। মানবতা বর্তমান সরকারের আচরনে চিলবাআছে কি ?....... দলের নএীহলে প্রয়োজনে হাজারো লাস পড়ে যেত,কিন্তু তাদের নেএীকে এক সেকেন্ডের জন্য অন্ধকার কারাপ্রকৌষ্টে ডুকাতে দিতনা। আপনারা দায়িত্বশীলদের এর জবাব জনগনের আদালতে এক দিন দিতেহবে। দলের কিছু সুবিদাবাদী নেতানামক কলঙ্কদের কারনে বছরের পর বছর আঙ্গসংগঠনের কমিটিগুলো পুর্নাঙ্গ করাযাচ্ছেনা বা হইতেছেনা। তাই কোন প্রকার ন্যায় সংগত আন্দোলন হচ্ছেনা।
    Total Reply(0) Reply
  • ahammad ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ২:২৬ এএম says : 0
    জনাব, আপনারা নেতারা কানেতৈল দিয়ে গুমান আর দঃস্বপ্ন দেখতে থাকুন। মানবতা বর্তমান সরকারের আচরনে চিলবাআছে কি ?....... দলের নএীহলে প্রয়োজনে হাজারো লাস পড়ে যেত,কিন্তু তাদের নেএীকে এক সেকেন্ডের জন্য অন্ধকার কারাপ্রকৌষ্টে ডুকাতে দিতনা। আপনারা দায়িত্বশীলদের এর জবাব জনগনের আদালতে এক দিন দিতেহবে। দলের কিছু সুবিদাবাদী নেতানামক কলঙ্কদের কারনে বছরের পর বছর আঙ্গসংগঠনের কমিটিগুলো পুর্নাঙ্গ করাযাচ্ছেনা বা হইতেছেনা। তাই কোন প্রকার ন্যায় সংগত আন্দোলন হচ্ছেনা। আপনারা বায়োবৃদ্ধ যাহারা আছেন,জোয়ানদের কমিটি সম্পুর্ন করে তাদেরকে দিকনির্দেশনা দিয়ে পরিচালিত করুন। জোয়ারা সকল অপশক্তি মোকাবেলা করার জন্য প্রস্তত ইনশাআল্লাহ।
    Total Reply(0) Reply
  • Musafir ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ৩:১৮ এএম says : 0
    Le...baba ekhon nake teldhia ghuma!
    Total Reply(0) Reply
  • ** মজলুম জনতা ** ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ১০:০৯ এএম says : 0
    মানবিক দিক বিবেচনা পুর্বক খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেওয়া হোক।
    Total Reply(0) Reply
  • oti_shadharon ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ৮:১৬ এএম says : 0
    সব বিচারক কি নিরপেক্ষ? তাই আগে বাড়িয়ে এতো আশাবাদী হওয়ার কিছু দেখছি না।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মওদুদ আহমদ

২১ অক্টোবর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ