Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ৩১ মে ২০২০, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৭ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

কুবিতে ভর্তি পরীক্ষা না দিয়ে ১২তম হওয়ার ঘটনায় সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড়

শাহেদ নুর | প্রকাশের সময় : ৩০ নভেম্বর, ২০১৯, ৬:৫৪ পিএম

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির প্রথম বর্ষের ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ না করেই মেধা তালিকায় ১২তম হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় তদন্তে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তদন্ত কমিটির রিপোর্ট প্রকাশিত না হওয়া পর্যন্ত ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি কার্যক্রম স্থগিত থাকবে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর প্রকাশিত হওয়ার পর শুরু হয় তোলপাড়। সর্বত্র বইছে নিন্দা, ক্ষোভ ও তিরস্কারের ঝড়।

মিরাজুল ইসলাম তার ফেইসবুকে লিখেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় যদি এই ধরনের ঘটনা ঘটে তাহলে আর বুঝতে বাকী থাকে না যে এই জাতীর ভবিষ্যত কেমন হবে। এই ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।’

দেলোয়ার হোসেন দেলু লিখেন, ‘যে দেশে মৃত ব্যক্তিও ভোট দিতে পারে, রাতের ভোট দিনে হয় আর ভোট ছাড়াও নির্বাচিত হওয়া যায়, সে দেশে পরিক্ষা না দিয়ে পাস হওয়া অসম্ভব কিছু না!’

‘একটা টকশোতে একজন বলেছিলো, কুমিল্লা ইউনিভার্সিটিকে যেন ভিকটরিয়া কলেজের অধীনে দিয়ে দেওয়া হয়। কারণ ভিক্টরিয়া কলেজে যে পরিমাণ ডক্টরেট বা পিএইচডিধারী এবং দক্ষ শিক্ষক আছে তার ৫%-ও এই বিশ্ববিদ্যালয়ের নাই। বাংলাদেশের সবচেয়ে জঘন্য ইউনিভার্সিটি এটাই। এর থেকে এর বেশি কিছু আশা করা যায় না।’ - আশরাফুল ইসলামের মন্তব্য।

কটাক্ষ করে আজিজুর রহমান লিখেন, ‘অনুপস্থিত হয়েও ভর্তি পরিক্ষায় ১২তম! আপনারা আর যাই বলেন অযোগ্যদের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়িয়েই যোগ্য করে তুলতে বিভিন্ন সিন্ডিকেট ও ভর্তি কমিটির লোকজন অন্তত শুভেচ্ছা টুকুতো পেতে পারে! জাতির ঘরে ঘরে শিক্ষার আলো, এত আলো রাখবো কই সখি!’

‘কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও সংশ্লিষ্টদের নোবেল দেওয়া হোক!’ - খাইরুল ইসলামের দাবি।

হোসাইন মাহমুদ বেল্লাল লিখেন, ‘আমাদের দেশে সব অসম্ভবকে সম্ভব করা যায়, এতে আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই।’

‘ভর্তি পরীক্ষা আর চাকরি পরীক্ষা, দুর্নীতি আর স্বজনপ্রীতিতে ভরপুর। মেধার দোহাই দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা কোটাকে কবর দিয়ে এবার যা ইচ্ছে তাই করা হচ্ছে।’ - ক্ষোভ প্রকাশ করে লিখেন শাকিল আহমেদ সিয়াম।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সোশ্যাল মিডিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ