Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার , ১৮ জানুয়ারী ২০২০, ০৪ মাঘ ১৪২৬, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

৬২৯ পাকিস্তানি নাবালিকা ও মহিলা পাচার চীনে!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৪:০১ পিএম

পাকিস্তান থেকে ৬২৯ জন নাবালিকা ও মহিলাদের চীনের বাজারে বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয় তাদেরকে জোর করে চীনে বিয়ে দিয়ে দেওয়া, ধনী চীনাদের কাছে বিক্রি করে দেওয়ার মতো তথ্য এবার প্রকাশ করল পাকিস্তান। দেশের দারিদ্র ও সুরক্ষার অভাবে পাকিস্তান থেকে বেশি সংখ্যক নারী পাচারের ঘটনা যে ঘটে তা স্বীকার করে নিল প্রতিবেশী দেশ।

২০১৮ সালে পাচারের ঘটনায় কত সংখ্য মহিলাকে অন্য দেশে নিয়ে যাওয়া হয়েছে, তার একটি পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করা হয়। এই বিপুল সংখ্যক পাচারের পিছনে রয়েছে পাকিস্তান ও বেইজিংয়ের কয়েকটি সংঘবদ্ধ চক্র। এই চক্রগুলো নিয়ন্ত্রন করতে না পারার কারণেই পাচারের সংখ্যা বিপুল হারে বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

সম্প্রতি, পাচারের কাজে যুক্ত ৩১জন চীনা ব্যাক্তিকে আটক করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অন্যদিকে পুলিশের হস্তক্ষেপে মহিলাদের সচেতন করার চেষ্টা হলেও তা ব্যর্থ হয়েছে বহুবার। কারণ, পরিবারের চাপে কিংবা ভয় দেখিয়ে চুপ থাকার হুমকি দিয়ে বেশিরভাগ মেয়েকেই হাতের পুতুল করে রেখে দেওয়া হয়। ফলে পুলিশ বা আদালত কেউই শেষমেশ সমস্যার সমাধান করতে পারেনি। মুখ খুললেই মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে মুখ বন্ধ করে রাখায় মেয়েরা সাহস করে এগিয়ে আসতে পারছে না বলেই মনে করছে তদন্তকারীরা।

এ বিষয়ে এক পাক তদন্তকারী অফিসার জানিয়েছেন, এই নাবালিকা ও মহিলাদের জন্য কেউ এগিয়ে আসছে না। গোটা প্রক্রিয়াটি এখনও চলছে। এটা আরও দিনে দিনে বাড়ছে। কেন জানেন? কারণ তারা জানে তারা এটা করে পার পেয়ে যাবে। কর্তৃপক্ষও চেষ্টা করছে না। সকলেই জোর করছে, যাতে এই বিষয়ে তদন্ত না হোক। ফলে পাচারের ঘটনা বেড়েই চলেছে এখন। অন্যদিকে এই পাচারের ঘটনা নাকি জানেই না চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সূত্র: আল-জাজিরা।



 

Show all comments
  • Shahinur islam ৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৫:৪৯ পিএম says : 0
    Sokol moslim narider k nirapotta dite hobe sokol netader k.e rokom kobor balo lagena.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চীন

১৬ জানুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ