Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ০৮ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

অবশেষে পুলিশের হাতে আটক হলেন কোটিপতি পিয়ন ইয়াছিন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৩:১৬ পিএম

অবশেষে গতকাল শুক্রবার পুলিশের হাতে আটক হয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর সাব রেজিস্ট্রার কার্যালয়ের কোটিপতি পিয়ন ইয়াছিন মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ। ভোরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা ভবনের সামনে থেকে আটক করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। ইয়াছিন জেলার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার আতুয়াকান্দি এলাকার হাজী মোহন মিয়ার ছেলে।

স¤প্রতি সদর সাব রেজিস্ট্রার কার্যালয়ে অডিট হওয়ার পর কোটি টাকার ঘাপলার বিষয় নজরে আসে সবার। এরপর গা ঢাকা দেন ইয়াছিন। এ ঘটনায় সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও করা হয়।
জানা গেছে, ২০০৬ সালে ইয়াছিন সদর উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার কার্যালয়ে পিয়ন পদে চাকরি পান। এরপর নানা সময়ে তাকে আশুগঞ্জ ও নাসিরনগর উপজেলায় বদলি করা হলেও ঘুরে ফিরে তিনি সদর উপজেলায়ই চাকরি করেন। প্রায় সময়ই অফিসের নকল, তল্লাশি ও রেজিস্ট্রেশন ফিসহ চালানের টাকা সোনালী ব্যাংকে জমা দিতে পাঠানো হতো তাকে। কিছুদিন আগে অফিসিয়াল অডিটে তার বিরুদ্ধে ‘কোটি টাকার ঘাপলা’ প্রকাশ পায়। এরপর গাঢাকা দেন ইয়াছিন। অভিযোগ ওঠেছে, ব্যাংকের ভুয়া চালান তৈরি করে তিনি ওই টাকা আত্মসাৎ করেছেন।
ইয়াছিনের তিনটি ফ্ল্যাট-বাড়িসহ নামে বেনামে রয়েছে আরও অনেক সম্পত্তি। বিয়েও করেছেন তিনটি। সংসার করেন সব স্ত্রীর সঙ্গেই। সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন জানান, ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে থানা এলাকা থেকে ইয়াছিনকে আটক করা হয়। তার অফিসের কর্মকর্তাদের সহযোগীতায় তাকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।


 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কোটিপতি পিয়ন ইয়াছিন
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ