Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ১৯ জানুয়ারী ২০২০, ০৫ মাঘ ১৪২৬, ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

সমঝোতার ১৯ কোটি পাউন্ড দাতব্য কাজে ব্যয় করবে পাকিস্তান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৭:৫৮ পিএম

ব্যবসায়ী মালিক রিয়াজের পরিবার এবং যুক্তরাজ্য সরকারের মধ্যে সমঝোতা থেকে প্রাপ্ত ১৯ কোটি পাউন্ড সমাজকল্যাণ মূলক কাজে ব্যবহার করবে পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় সরকার। শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী শাহজাদ আকবর এই তথ্য জানিয়েছেন।

শাহজাদ আকবর জানান, ‘বন্দোবস্ত চুক্তিতে হাইড পার্কের ৫ কোটি পাউন্ডের ফ্লাট বিক্রয় এবং এর অর্থ পাকিস্তানের পাঠানোর বিষয়টিও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। বাকি ১৪ কোটি পাউন্ড ন্যাশনাল ব্যাংক অফ পাকিস্তানে সুপ্রীম কোর্টের হিসাবে স্থানান্তরিত হয়েছে। এই অর্থ জন্য সমাজকল্যাণ এবং দরিদ্রদের জন্য ব্যয় করতে কেন্দ্রীয় সরকারকে দেয়ার জন্য সুপ্রীম কোর্টের কাছে আবেদন করা হয়েছে।’

মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল ক্রাইম এজেন্সি (এনসিএ) মালিক রিয়াজের সম্পত্তি নিয়ে তার পরিবারের সাথে বন্দোবস্তে সম্মতি জানায়। তারা ১৯ কোটি পাউন্ডের একটি সমঝোতা প্রস্তাব গ্রহণ করেছে, যার মধ্যে যুক্তরাজ্যের হাইড পার্কের ৫ কোটি পাউন্ডের ফ্লাট এবং নয়টি স্থগিত ব্যাংক হিসাবের সমস্ত অর্থ রয়েছে। একটি বিবৃতিতে ‘এনসিএ’ জানিয়েছিল, এই তহবিল পাকিস্তানের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এই সমঝোতা থেকে প্রাপ্ত অর্থ মালিক রিয়াজের জরিমানা আদায়ের জন্য ব্যবহার করা হবে কি না তা নিয়ে বৃহষ্পতিবার সৃষ্ট বিভ্রান্তি দূর করতেই শুক্রবার সাংবাদিকদের কাছে বিস্তারিত তথ্য জানালেন শাহজাদ আকবর। গত মার্চে পাক সুপ্রিম কোর্ট মালিক রিয়াজকে ৪৬ হাজার কোটি রুপি জরিমানা করে।

আকবর টুইটারের জানান, ‘পাকিস্তান সরকার এই বিষয়টির বাইরে প্রকাশ না করার জন্য গোপনীয়তার চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে।’ তবে তিনি যোগ করেন, ‘পাক সরকার বর্তমানে অন্যান্য দেশের সাথেও একই ভাবে যোগাযোগ করছে এবং কয়েক মিলিয়ন ডলারের পুনরুদ্ধারের আশা করছে।’

এর আগে আকবর জানিয়েছিলেন, ১৯ কোটি পাউন্ডের মধ্যে ১৪ কোটি পাউন্ড পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। বাকি ৫ কোটি পাউন্ড মালিক রিয়াজের হাইড পার্কের ফ্লাট বিক্রি করার পর পরিশোধ করা হবে। সূত্র: ডন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান

১৮ জানুয়ারি, ২০২০
৬ জানুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন