Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার , ১৮ জানুয়ারী ২০২০, ০৪ মাঘ ১৪২৬, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

বিপিএলের টিকিটে ভারতীয় শিল্পীদের জয়জয়কার, সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্ক

আবদুল মোমিন | প্রকাশের সময় : ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:৫১ এএম

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল) উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের টিকিটে ভারতীয় শিল্পীদের প্রাধান্য দেয়ায় তুমুল বিতর্ক চলছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। টিকিটের ফিচারে দেশীয় শিল্পীদের ছোট করে দেখানো হয়েছে। যা নিয়ে কঠোর সমালোচনা করেছেন দেশীয় শিল্পী ও চলচ্চিত্রপ্রেমীরা।

আজ শুক্রবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের টিকিট বিক্রি শুরু হওয়ার পর থেকেই এই বিতর্ক শুরু হয়। অনেকেই টিকিটের ছবি ফেইসবুকে শেয়ার করে কঠোর প্রতিবাদ জানিয়েছেন। দেশীয় শিল্পী ও সংস্কৃতিকে প্রাধান্য না দেয়ায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন আয়োজকদের।

আগামী রোববার বিপিএলের উদ্বোধন করবেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এবারের বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মঞ্চ কাঁপাবেন প্রখ্যাত দেশীয় শিল্পীরা। পারফরম করবেন বরেণ্য ফোক সম্রাজ্ঞী মমতাজ ও ব্যান্ড কিংবদন্তি জেমস। পাশাপাশি দর্শক মাতাতে আসছেন ভাইজানখ্যাত বলিউড তারকা সালমান খান এবং শিলা কা জওয়ানি ক্যাটরিনা কাইফ। এ দুই সুপারস্টার ছাড়া পারফরম করবেন বলি সঙ্গীতশিল্পী সনু নিগম ও কপীলাশ খের।

বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের টিকিটের একপাশে সালমান খান এবং ক্যাটরিনার ছবি বড় করে ছাপা হয়েছে। আরেক পাশে বড় করে ছাপানো হয়েছে বলি সঙ্গীতশিল্পী সনু নিগমের ছবি। আর মাঝখানে নিচের অংশে ছোট করে ছাপানো হয়েছে দেশীয় শিল্পী মমতাজ ও ব্যান্ড কিংবদন্তি জেমসের ছবি।

দেশীয় শিল্পীদের অবহেলা করায় সমালোচনা করে ফেইসবুক পোস্টে সঙ্গীতশিল্পী জাকিয়া সুলতানা কর্ণিয়া লিখেছেন, ‘‘সবার প্রতি সম্মান রেখে বলছি, আমরা কি কখনোই নিজের দেশের গুনি শিল্পীগনদের সম্মান করবো না...?’’

গীতিকার সুহৃদ সুফিয়ান প্রতিবাদ জানিয়ে একটি লিরিক্স লিখেছেন। তিনি লিখেছেন, ‘‘বিপিএল-এ প্রতিবারই এমনটাই ঘটে/ঘটছে। ২০১১ সালে ঢাকায়, ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড কাপ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখার পর, ৯ বছর আগে, এই লিরিকটা লিখেছিলাম...

সত্যি কথার গানঃ আমরা অন্ধকারে…

এই ব্যথাটা লেগেই আছে,
বলবো বলো কারে?
বাপের ভিটায় সূর্য হাঁটে-
আমরা অন্ধকারে।

মোমবাতিটাই ভাগ্যে জোটে,
আকাশ অন্যকারো
এই কথাটা বলতে গিয়েও-
বলিনা একবারও।

চাপা পড়ে থাকতে থাকতে
‘ছাই’ হয়ে যাই ‘ছাই’
নিজের বাড়ি, নিজের উঠোন
আমরা কোথাও নাই।

বুঝতে গিয়েও বোঝেনা কেউ
খোঁজে অন্য তরি
আপন নদী, আপন বাতাস
তবু ডুবে মরি।

ভেসে আসা পাতার মতোই-
আমরা জলের পোকা?
দূরের জিনিস কাছে টেনে ‘বোকা’ হচ্ছো ‘বোকা’।

আবির আসিফ লিখেছেন, ‘‘সত্যি খুবই দুঃখজনক। নিজের দেশের শিল্পীদের চেয়ে অন্যদেশের শিল্পীদের কদর বেশি, এটা শুধু বাংলাদেশই সম্ভব।’’

‘‘আমরা বাঙালি জাতি বিদেশিদের কদর ছাড়া আর কিছু জানিনা। যে বিদেশিরা আমাদের নিয়ে হাসি ঠাট্রা করে তাদের আমরা বড় বড় সম্মানে আখ্যায়িত করি। আর আমার দেশে কত বড় বড় গুনি জন রয়েছে তাদের আমরা চোখ দিয়ে দেখিনা। হায়েরে আমার দেশ’’ আক্ষেপের সাথে কথাগুলো লিখেছেন আরোশ আহমেদ।

সারওয়ার লিখেছেন, ‘‘যাদেরকে এভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে বা হয়, উনাদেরকে কখনও প্রতিবাদ করতে শুনিনা বা দেখি না। সুতরাং চলছে, চলবে।’’

মো. পাপ্পু লিখেছেন, ‘‘এগুলো দেখলে মনে হয় আমাদের নিজস্বতা বলে কিছুই নাই। লজ্জা লাগে, লাগুক। তাতে কার কি আসে যায়।’’

‘‘যে দেশে গুণী লোককে সম্মান করে না সে দেশে গুণীর জন্ম হয় না’’ প্রতিবাদ জানিয়ে লিখেছেন মো. সোহেল আসিফ।

এদিকে, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পারফরম করবেন বিতর্কিত বলি সঙ্গীতশিল্পী সনু নিগম। যিনি কয়েক বছর আগে আযান নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে ব্যাপক সমালোচিত হন। মুসলিমপ্রধান বাংলাদেশে তাকে আমন্ত্রণ জানানোয় নিন্দা জানিয়েছেন কেউ কেউ।

রাফসান রহমান লিখেছেন, ‘‘যে আযানের শব্দ তার বিরক্ত লাগে তাকে আমন্ত্রণ করেছে...কিছু বলার নাই।’’

মৃণাল নাথ মুকুল লিখেছেন, ‘‘এটা কখনো শুধরাবেনা যতদিন না আমরা শুধরাই। আমরা টিকেট না নিলেতো হয়। কিন্তু আপনি কাকে বুঝাবেন। সবাইতো মুখে শুধু বাংলাদেশ বাংলাদেশ করে। আর নিজের দেশের সম্পদকে হেয় করে বিদেশিতে হাইপ তুলে। রাঘব বোয়ালরা বড়শী ফেলে আমাদের বোকা বানিয়ে, সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে খায় লুটেপুটে। সলো শিল্পী হিসেবে হাবিব ভাই, আসিফ ভাই রা সুনু নিগম থেকে ভালো স্টেজ জমাতে পারে। বুদ্ধি একটা আছে জেমস ভাইরে দাঁড় করিয়ে দিয়ে সবার মুখে কুলুপ এঁটে দেওয়া।’’

‘‘দেশে রাজত্ব করে ভিনদেশিরা আর আমরা তাদের চমচমে করি গত কয়েক বছর ধরে এটাই দেখে আসছি, দুঃখজনক’’ লিখেছেন মোহাম্মাদ সামি নুর।

 



 

Show all comments
  • Nadim ahmed ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১০:৫১ পিএম says : 0
    Bangabondhu BPL, so they will, as usual, give importance to Indian culture. And this way, they are not giving respect to Bangobondhu. They understand it better than us but they are bound to do that. Because, they are sold to India. They are afraid if India is unhappy they will be pulled out from the power they are enjoying now under the safe hands of India.
    Total Reply(0) Reply
  • mahin ৯ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৪:০৮ পিএম says : 0
    Amader ai desh ear guni artists der choto kore dekha oporadh Sobai khali katrina are salman kore Ar chaite sakib nusrat era valo
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সোশ্যাল মিডিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ