Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার , ২৮ জানুয়ারী ২০২০, ১৪ মাঘ ১৪২৬, ০২ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

তরুণীর মগজ মেখে ভাত খেল এক খুনি!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:৪৫ পিএম

এটা কোনও হলিউড-বলিউডের সিনেমার স্ক্রিপ্ট নয়। মানুষের কল্পনাকেও হার মানায়। বাস্তবেই ঘটল এমন ঘটনা যা শুনলে আপনি আঁতকে উঠবেন। নিজের মনের কথা বুঝতে না পারায় মাথা কেটে খুন করা হয়েছে এক নারীকে। এরপর....। এরপর ওই নারীর মাথার ঘিলু বের করে মেখে ভাতও খায় খুনি যুবক। এ ঘটনাটি ঘটেছে সম্প্রতি ঘটেছে ফিলিপাইনের একটি দ্বীপে।
জানা গেছে, বৃহস্পতিবার খুব সকালে ফিলিপাইনের মিডানো দ্বীপে নিজের বাড়ি ফিরছিল ২১ বছর বয়সী তরুণ লিয়াডো ব্যাগটগ। নাক পর্যন্ত মদ খেয়ে হাঁটার মতো অবস্থা ছিল না তার। এদিকে খিদের যন্ত্রণায় পেটের নাড়িভুঁড়িও ছিঁড়ে যাওয়ার অবস্থা। হঠাৎই পথিমধ্যে এক তরুণী সঙ্গে দেখা লিয়াডোর। সেই তরুণী আবার ইংরাজিতে কথা বলেন। কিন্তু সে ভাষা তো আর লিয়াডোর জানা নেই। সে নিজের অবস্থা সেই অজ্ঞাতপরিচয় মেয়েটিকে বারবার বোঝানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয় লিয়াডো। না লিয়াডো তার কথা বুঝতে পারছিল, না মেয়েটি লিয়াডোর আবেদন বুঝতে পারছিল। এক পর্যায়ে সে মেয়েটিকে এড়িয়ে সামনের দিকে হাটতে লাগল। কিন্তু মেয়েটি ক্রমাগত বকবক করতে-করতে লিয়াডোর পিছন-পিছন হাঁটতে থাকে। আর এতেই রাগে ফেটে পড়ে লিয়াডো।
পুলিশ বলছে, এরপরই লিয়াডো মেয়েটিকে একটি জনমানবশূন্য এলাকায় নিয়ে যায়। মেয়েটিকে কোমরের বেল্ট দিয়ে বেঁধে ফেলে মাথায় আঘাত মারে। তাতেও ক্ষান্ত হয়নি সে। অতপর লিয়াডো এক টুকরো কাপড় জোগাড় করে তা দিয়েই বেঁধে মুন্ডুটি হাতে নিয়ে বাড়িও আসে। ঠান্ডা মাথায় সে ভাতও রান্না করে। তারপর কাটা মুন্ডুর ঘিলু বের করে ভাতে মেখে খেয়েও ফেলে। পরে খুলিটা জানলা দিয়ে ছুঁড়ে ফেলে দেয়। তার এই স্বীকারোক্তিতে চমকে গিয়েছে পুলিশও।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, তাঁরা ওই মেয়েটিকে লিয়াডোর সঙ্গে নির্জন জায়গায় যেতে দেখেছিলেন। তারপর কী হয়েছে তারা জানেন না। তবে লিয়াডোর প্রতিবেশিরা জানান, আগাগোড়াই রগচটা ছিল লিয়াডো। বহুদিন ধরে কর্মহীনও ছিল সে। ফলে দিনদিন খিটখিটেও হয়ে যাচ্ছিল। সারাদিনই মদে ডুবে থাকত। তাই লিয়াডোর পক্ষে এই র্কীতি ঘটানো মোটেও অসম্ভব নয়।



 

Show all comments

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফিলিপাইন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ