Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার , ২৯ জানুয়ারী ২০২০, ১৫ মাঘ ১৪২৬, ০৩ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবি

ইনকিলাবে সংবাদ প্রকাশের পর তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ

শিহাব মল্লিক, শৈলকুপা (ঝিনাইদহ) থেকে | প্রকাশের সময় : ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

ঝিনাইদহের শৈলকুপা পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের আভ্যন্তরীণ দ্ব›দ্ব বিবাদ ও নানা অনিয়মের প্রেক্ষিতে সম্প্রতি দৈনিক ইনকিলাব ফলাও করে খবর প্রকাশ করে। খবরটি প্রশাসন ও সুধি মহলের নজর কেড়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিরীক্ষা অধিদফতরের উপ-পরিচালক রসময় কীর্ত্তনীয়া এবং শিক্ষা পরিদর্শক হেমায়েত উদ্দীন বিদ্যালয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করেছেন। প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে লিখিত ১১টি অভিযোগের মধ্যে অধিকাংশই প্রমাণিত হয়েছে। অভিযোগের বিভিন্ন অনুচ্ছেদে রেজুলেশন টেম্পারিং, ভূয়াবিল ভাউচারের মাধ্যমে বেশ কয়েকটি খাতের টাকা আত্মসাতের সত্যতা পাওয়া গেছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ রয়েছে। অপরদিকে প্রধান শিক্ষকের অপসারণের দাবিতে বার্ষিক পরীক্ষা চলাকালীন তাদের কর্মবিরতি এখন পর্যন্ত চলমান রয়েছে। আন্দোলনরত শিক্ষকগণ জানান, বার্ষিক পরিক্ষা শেষ হওয়ার পর তারা কঠোর কর্মসূচি পালন করবেন। হ-য-ব-র-ল অবস্থার মধ্য দিয়ে চলমান বার্ষিক পরীক্ষা শেষের পথে হলেও বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। কমিটি কর্তৃপক্ষের রহস্যজনক ভূমিকা নিয়ে জনমনে বিভিন্ন প্রশ্ন উঠেছে। বিষয়টি নিয়ে নানা মহলে রীতিমত গুঞ্জন সৃষ্টির পাশাপাশি স্থানীয় রাজনৈতিক অভিভাবকদের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।
ইতোমধ্যে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষক কর্মচারীদের দায়েরকৃত অভিযোগ ও প্রকাশিত সংবাদের বিষয়টি নিয়ে উপজেলা প্রশাসন, জেলা শিক্ষা অফিসারের তদন্তের গাফিলতির বিষয়টিও ঝিনাইদহের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (আইসিটি ও শিক্ষা) রবিউল ইসলাম তদন্ত করছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ