Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার , ২১ জানুয়ারী ২০২০, ০৭ মাঘ ১৪২৬, ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

রাতারাতি সব বদলে দেওয়া সম্ভব নয়

স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:২৬ এএম

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, ঢাকাকে দৃষ্টিনন্দন শহর গড়ে তুলতে নানা প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। তবে রাতারাতি সব বদলে ফেলা সম্ভব নয়। এজন্য কিছুটা সময় লাগবে।
গতকাল বুধবার রাজধানীর আফতাবনগর সংলগ্ন খিলগাঁও থানাধীন দাশেরকান্দি এলাকায় পয়ঃশোধনাগার প্রকল্প পরিদর্শনকালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। এসময় প্রকল্পের অগ্রগতি সম্পর্কে বাংলাদেশি ও চায়নার প্রকৌশলীরা মন্ত্রীকে অবহিত করেন।
তাজুল ইসলাম বলেন, বায়ু দূষণ কমাতে মাস্টার প্ল্যান গ্রহণ করা হবে। বিভিন্ন জায়গায় রাস্তা খোঁড়াখুড়ির কারণে বায়ু দ‚ষণ হচ্ছে। প্রায় সারা বছর ধরে এসব কাজ চলতে থাকে। এমন যেন আর না হয় সে লক্ষ্যে আমরা মাস্টার প্ল্যান গ্রহণ করছি। দাশেরকান্দি পয়ঃশোধনগার প্রকল্পের মাধ্যেমে সৃষ্ট পয়ঃবর্জ্য পরিশোধন করে নিষ্কাশিত করার মাধ্যমে পানি ও পরিবেশ দ‚ষণ রোধ করা সম্ভব হবে।
প্রকল্প কর্মকর্তারা জানান, ঢাকার পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থাকে একই পাইপলাইনে নিয়ে আসতে চীন সরকারের সহযোগিতায় ঢাকা ওয়াসার ২০২৫ সালের মধ্যে বাস্তবায়নাধীন মহাপ্রকল্পের অংশ হিসেবে দাশেরকান্দির এ পয়ঃশোধনাগার প্রকল্প নির্মিত হচ্ছে।
তিন হাজার ৩৭৭ কোটি ১৭ লাখ টাকা ব্যয়ে এ প্রকল্প ২০২০ সালের মধ্যে বাস্তবায়ন করা হবে। ২৪ হেক্টর জমির ওপর বাস্তবায়নাধীন এ প্রকল্পে দৈনিক ৫০ কোটি লিটার পয়ঃবর্জ্য পরিশোধনের মাধ্যমে ৫০ লাখ নগরবাসীকে সেবা দেওয়া সম্ভব হবে।
ওয়াসার মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ী ঢাকা শহরের অভ্যন্তরে পাগলা, দাশেরকান্দি, রায়েরবাজার, উত্তরা ও মিরপুর এলাকায় মোট পাঁচটি পয়ঃশোধনাগার নির্মাণ হবে। দাশেরকান্দি পয়ঃশোধনাগারের মাধ্যমে গুলশান, বনানী, বারিধারা ডিওএইচএস, বসুন্ধরা, বাড্ডা, ভাটারা, বনশ্রী, কুড়িল, সংসদ ভবন এলাকা, শুক্রাবাদ, ফার্মগেট, তেজগাঁও, আফতাব নগর, নিকেতন, সাঁতারকুল, হাতিরঝিল ও এর আশপাশের এলাকার সৃষ্ট পয়ঃবর্জ্য পরিশোধন করে বালু নদীতে নিষ্কাশিত হওয়ার মাধ্যেমে পানি ও পরিবেশ দ‚ষণ রোধ করা সম্ভব হবে।
স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের তত্ত¡াবধানে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে ঢাকা ওয়াসা। নির্মাণ প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান হাইড্রো-চায়না।
##



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন